Posts Tagged: ২৫. দাওয়াত (দাওয়াতে খায়র)

শরীয়তের দৃষ্টিতে ওরস মোবারক

শরীয়তের দৃষ্টিতে ওরস মোবারক

।। ছয়।। শরীয়তের ওরস মোবারক ‘ওরস’ (عرس)-এর আভিধানিক অর্থ বিবাহ। বর ও কনে উভয়কে আরবীতে ‘আরূস’ (عروس) বলা হয়। বাসর, প্রীতিভোজ, ওলীমাহ্ (وليمه – طعام – زفاف)কেও ওরস বলা হয়। এর বহুবচন হয় ‘আ’রাস’ ও ‘উরূসাত’ (اعراس وعروسات)। [আল-মুনজিদ] পরিভাষায়, বুযুর্গগানে দ্বীন-এর ওফাত দিবসকে ‘ওরস’ বলা হয়। এর ভিত্তি হাদীসে পাকে বর্ণিত আছে, মুন্কার ও নাকীর …

আক্বীদার বিশুদ্ধতার সাথে আমল ও সচ্চরিত্রের গুরুত্ব

আক্বীদার বিশুদ্ধতার সাথে আমল ও সচ্চরিত্রের গুরুত্ব

হাফেজ মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান আল্লাহর কৃতজ্ঞতা ও প্রশংসায় বিন¤্র হই, যিনি আমাদের বিশুদ্ধ আক্বীদা, গ্রহণযোগ্য নেক আমল ও প্রশংসনীয় চরিত্র শেখানোর জন্য তাঁর হাবীব সাল্লাল্লাহু তা‘আলা আলায়হি ওয়াসাল্লামকে প্রেরণ করেছেন। তাঁর প্রিয় হাবীবের প্রতি অসংখ্য দুরূদ ও সালাম, যিনি আমাদেরকে বিশুদ্ধ আক্বীদা-বিশ্বাসের স্বরূপ ও আমল-আখলাক্বের তা’লীম দিয়েছেন। তাঁর অযুত সাহাবা ও তাঁদের যোগ্য উত্তরসূরী অসংখ্য ওলি-আওতাদ, …

ইমাম-ই আ’যম আলায়হির রাহমাহ্ ও হানাফী মাযহাবের শ্রেষ্ঠত্ব

ইমাম-ই আ’যম আলায়হির রাহমাহ্ ও হানাফী মাযহাবের শ্রেষ্ঠত্ব

মাওলানা মুহাম্মদ আবদুল মান্নান আল্লাহ্ তা‘আলা তাঁর হাবীব সাল্লাল্লাহু তা‘আলা আলায়হি ওয়াসাল্লাম-এর মাধ্যমে তাঁরই একমাত্র পছন্দনীয় ও পূর্ণাঙ্গ দ্বীন-ইসলাম দুনিয়াবাসীকে দান করেছেন। আর এ দ্বীন-ই ইসলামের বিরুদ্ধে যখনই কোনভাবে চক্রান্ত হয়েছে এবং সেটার স্বচ্ছ অবয়বের উপর কলঙ্ক লেপনের জন্য ষড়যন্ত্র হয়েছে, তখনই আল্লাহ্ তা‘আলা সেটার সত্যতা ও স্বচ্ছতাকে অক্ষুণœ-অম্লান রাখারও ব্যবস্থা করেছেন। আলহামদুলিল্লাহ। উদাহরণ স্বরূপ, …

তাসাওফ ও তরীক্বতের গুরুত্ব

তাসাওফ ও তরীক্বতের গুরুত্ব

মাওলানা মুহাম্মদ বদিউল আলম রিজভী তাসাউফ ইলমে তাসাওফ বা সুফীবাদ ইসলামের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ‘তাসাওফ’ তথা তরীক্বত চর্চা ও অনুশীলন করে মানবজাতি বাস্তব জীবনে ইসলামের প্রকৃত শান্তি উপলব্ধি করতে পারে। তাসাওফ ও তরীক্বত ভিত্তিক জীবন গঠন মানব জাতির ইহকালীন শান্তি, পরকালীন কল্যাণ ও মুক্তি নিশ্চিত করতে পারে। ‘তাসাওফ’ ও ‘তরীক্বত চর্চা’ ইসলামের নতুন কোন বিষয় …

ইসলামি সংস্কৃতির প্রকৃতি, তাৎপর্য ও এর পরিধি

ইসলামি সংস্কৃতির প্রকৃতি, তাৎপর্য ও এর পরিধি

অ্যাডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার ‘সংস্কৃতি’ বিমূর্ত বিষয়। এর কোনো বস্তুগত স্বরূপ নেই। দেখা যায় না, ছোঁয়া যায়না- এমন কিছু বিধায় একে শুধু অনুভব করা যায়। বুদ্ধি দিয়ে বুঝবার বিষয় এটি। সংস্কৃতি সম্পর্কে একেকজন একেকভাবে ধারনা দিয়ে থাকেন। বিভিন্ন জনের ধারনার আলোকে ও বিশ্লেষণে এর একটি সাধারণ জ্ঞান বা ধারণা আমাদের দৃশ্যপটে ভেসে ওঠে। এরই মাপকাঠিতে …