কুরবানির পশুর চামড়া বা বিক্রয়ের টাকা প্রদানের খাতগুলো কি কি?

0

মুহাম্মদ আবুল হোসাইন
আল-ফালাহ্ গলি, ২নং গেইট
চট্টগ্রাম।
প্রশ্ন: কুরবানির পশুর চামড়া বা বিক্রয়ের টাকা প্রদানের খাতগুলো কি কি? বিস্তারিত জানতে আগ্রহী।
 উত্তর: কুরবানীর পশুর চামড়ার বিক্রয়লব্ধ টাকা গরীব মিসকিনদের দান করাটা অনেক বড় পূণ্যময় ও সাওয়াবজনক। তবে ইচ্ছা করলে কুরবানী পশুর চামড়া বা তার বিক্রয়লব্ধ টাকা সুন্নি মাদরাসা/এতিমখানাসমূহের এতিম ও মিসকিন ছাত্রদের জন্য এতিমখানার মিসকিন ফান্ডেও দিতে পারবে। উল্লেখ্য যে, কুরবানী ও আকিকার পশুর চামড়া মাদরাসা, মসজিদ, রাস্তা কবরস্থান অথবা ফোরকানিয়া বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের জন্য হেবা বা দান করা বৈধ ও জায়েজ। যদি কুরবানী ও আকিকার চামড়া দ্বীনি সুন্নি মাদরাসাসমূহে পাঠাতে সক্ষম না হয় বা কষ্ট হয় তখন দ্বীনি সুন্নি মাদরাসাসমূহে দান করার নিয়্যতে চামড়া বিক্রয় করে উক্ত বিক্রয়লব্ধ টাকা মাদরাসা বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দান করতে কোন অসুবিধা নেই। এছাড়াও কুরবানীর পশুর পূর্ণ চামড়া ব্যবহারের যোগ্য করে জায়নামায বা দস্তরখানা বা অন্য ব্যবহারিক সামগ্রী বানিয়ে কোরবানীদাতা নিজে ও পরিবারের সদস্যগণ ব্যবহার করতে পারবে এবং ইচ্ছা করলে কোরবানির পশুর চামড়া আত্মীয়-স্বজন, ইমাম মোয়াজ্জিন বা যাকে ইচ্ছা-হেবা বা দান করতে পারবেন। শরিয়তের পক্ষ হতে অনুমতি আছে। এ বিষয়ে মাসিক তরজুমানের জিলহজ্ব ১৪৪০ হিজরি সংখ্যায় বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।
[ফতোয়ায়ে আলমগীরী, ফতোয়ায়ে ফয়জুর রসূল কৃত. মুফতি আল্লামা জালালুদ্দীন আহমদ আমজাদী (রহ.), ২য় খন্ড, ৪৭৩পৃ. কেফায়া-৮ম খন্ড, পৃ. ৪৩৭ইত্যাদি]
শেয়ার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •