শেরে মিল্লাত আল্লামা নঈমী ছিলেন সুন্নিয়তের ময়দানে সিংহপুরুষ

0

ষোলশহর আলমগীর খানকায় ১ম ওফাত বার্ষিকী স্মারক কনফারেন্সে বক্তারা-
শেরে মিল্লাত আল্লামা ওবায়দুল হক নঈমী ছিলেন 
সুন্নিয়তের ময়দানে সিংহপুরুষ
সিলসিলাহ্ আলিয়া কাদেরিয়ার মূখপ্রাপ্ত আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আতের চেয়ারম্যান, শেরে মিল্লাত, মুফতিয়ে আহলে সুন্নাত আল্লামা মুফতি ওবায়দুল হক নঈমী ছিলেন এক ক্ষণজন্মা আলেমে দ্বীন। কিংবদন্তিতুল্য ইসলামি বক্তা, মোনাযির (তার্কিক) এবং যুগশ্রেষ্ঠ মুহাদ্দিস। সুরালো কণ্ঠে প্রদত্ত ওয়াজের ময়দানে তাঁর তেজদ্বীপ্ত জ্ঞানগভীর বক্তব্য খোদাদ্রোহী ও নবীদ্রোহীদের মনে কম্পন সৃষ্টি করত। ইসলামের নামে ছদ্মবেশী ভ্রান্তমতবাদীদের স্বরূপ উম্মোচনের ক্ষেত্রে তিনি ছিলেন আপোষহীন সিংহপুরুষ। একজন খাটি আশেকে রসূল ও দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসাবে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সুফিবাদী দর্শনের আলোকে সুন্নিয়তের প্রচার-প্রসার ছিল তাঁর মিশন ও ভিশন। তিনি সিলসিলায়ে আলিয়া কাদেরিয়ার মশায়েখ-ই এজামের একান্ত অনুরক্ত এবং এ ত্বরিকার একজন মূখপাত্র হিসাবে নিজেকে সদা নিয়োজিত রাখলেও সকল হকপন্থী সুন্নি পীর মশায়েখ ও ওলামায়ে কেরামের প্রতি ছিলেন গভীর শ্রদ্ধশীল। আল্লামা নঈমীর সুদীর্ঘ ছয় দশকের মিশনারী কার্যক্রমের অধিকাংশই ব্যয় করেছেন শিক্ষকতা পেশায়। যার প্রায় চারদশক ছিলেন এশিয়া বিখ্যাত দ্বীনী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার দরসে হাদিস, ফিক্হ ও তাফসিরে। একজন দায়িত্বশীল ও শিক্ষার্থী বান্ধব শিক্ষক হিসাবে নঈমী সাহেব ছিলেন হাজারো ছাত্রের অতিপ্রিয় শিক্ষাগুরু। জীবনের শেষ নিঃশ্বাসের আগ পর্যন্ত তিনি জামেয়ার শ্রেণি কক্ষে ও আলমগীর খানকাহ্ শরীফে বিশেষ ক্লাসে হাদিসের দরস দিয়েছেন। অপরদিকে সুন্নী মুসলমানদের ঐক্য প্রতিষ্ঠায় নেতৃত্ব দিয়ে গেছেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আতের। পদলোভহীন, নিরহঙ্কার ও সহজ-সরল জীবন যাপনে অভ্যস্ত আল্লামা নঈমীই একমাত্র আলেম যার উপাধী ‘শের-ই মিল্লাত’, সমকালীন দুনিয়ার আলেম সমাজে আর দ্বিতীয় কেউ নেই।
গত ২৬ জুন শনিবার বিকালে নগরীর ষোলশহরস্থ আলমগীর খানকায় শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবায়দুল হক নঈমী (র.) এর স্মরণে আয়োজিত শেরে মিল্লাত কনফারেন্স-এ এ কথাগুলো বলেন। আল্লামা মুফতি ওবায়দুল হক নঈমী (র.)’র ১ম ওফাত বার্ষিকী উপলক্ষে শেরে মিল্লাত ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ আয়োজিত কনফারেন্স-এ সভাপতিত্ব করেন জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি অছিয়র রহমান আল-কাদেরী। প্রধান অতিথি ও প্রধান আলোচক ছিলেন আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট’র সি.ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহসিন ও আহলে সুন্নাত ওয়ার জমা’আত বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান আল্লামা কাজী মঈনুদ্দিন আশরাফী।
অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ও বিশেষ অতিথি ছিলেন- আনজুমান রিসার্চ সেন্টার’র মহাপরিচালক আল্লামা এম.এ মান্নান, আনজুমান ট্রাস্ট’র সেক্রেটারি জেনারেল আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মোহাম্মদ কমিশনার, যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার, আহলে সুন্নাত সন্মেলন সংস্থা (ওআইসি)’র সভাপতি আল্লামা হাফেজ সোলায়মান আনসারী, জামেয়ার উপাধ্যক্ষ আল্লামা ড.লিয়াকত আলী, প্রধান ফক্বিহ মুফতি আল্লামা কাযী আবদুল ওয়াজেদ, মুহাদ্দিস আল্লামা আশরাফুজ্জমান আল-কাদেরী, প্রধান মুহাদ্দিস মাওলানা জসিম উদ্দিন আল আজহারী, আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আতের প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা নুর মোহাম্মদ আলকাদেরী, অধ্যক্ষ মাওলানা বদিউল আলম রিজভী, সার্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মাওলানা মুহাম্মদ জালাল উদ্দিন আজহারী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মাওলানা মুহাম্মদ মুরশেদুল হক।
শেরে মিল্লাত কন্ফারেন্স প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ ও সদস্য সচিব মাওলানা আবদুল মালেকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কনফারেন্স-এ অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, প্রবীন আলেম মাওলানা আবুল হাশেম শাহ, মাওলানা গোলাম মোস্তফা মোহাম্মদ নুরুন্নবী, মাওলানা হোসাইন আহমদ ফারুকী, আল আমীন বারিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আল্লামা ইসমাইল নোমানী, উপাধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল আজিজ আনোয়ারী, মাওলানা সোলাইমান চৌধুরী, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ড. মাওলানা আনোয়ার হোসেন, ফয়জুল বারী মাদরাসার উপাধ্যক্ষ ড. মাওলানা খলিলুর রহমান, মাস্টার সৈয়দ আবদুল মান্নান, অধ্যক্ষ মাওলানা ড. সরওয়ারুদ্দিন, উপাধ্যক্ষ মাওলানা ড. সাইফুল আলম, অধ্যাপক মাওলানা ইলিয়াছ আলকাদেরী, মাওলানা ফজলুল কবির চৌধুরী। সম্মানিত অতিথি ছিলেন, আনজুমান-এ রাহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিযা ট্রাস্ট’র অ্যাসিস্টেন্ট জয়েন্ট সেক্রেটারি আলহাজ্ব মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন সাকের, গাউসিয়া কমিটির মহাসচিব শাহজাদ ইবনে দিদার, যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ্ব মাবুবুল হক খান, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সভাপতি ও আনজুমান সদস্য আলহাজ্ব কমরুদ্দিন সবুর, আহলে সুন্নত ওয়াল জমা’আত কেন্দ্রীয় অর্থ সচিব অ্যাডভোকেট মোখতার আহমদ, আল্লামা নঈমী (র.) এর ছাহেবজাদা মাওলানা কলিম উল্লাহ, হাবিব উল্লাহ শাহেদ, মাওলানা হামেদ রেজা নঈমী ও মাওলানা কাসেম রেজা নঈমী, মাওলানা মোহাম্মদ আবু তাহের, মাওলানা আলাউদ্দিন আলকাদেরী, মাওলানা ইউনুছ রিজভী, মাওলানা সাইফুদ্দিন আল আজহারী, মাওলানা নঈমুল হক নঈমী, গাউসিয়া কমিটির মহানগর শাখার আলহাজ্ব মাহবুব আলম, মনোয়ার হোসেন মুন্না, আলহাজ্ব খায়র মুহাম্মদ, আলহাজ্ব মুনির উদ্দিন সোহেল, উত্তর জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাস্টার জমির উদ্দিন, উত্তর জেলার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, দক্ষিণ জেলার সহ-সভাপতি আলহজ্ব নেজাবত আলী বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মাস্টার হাবিব উল্লাহ, গাউসিয়া কমিটি উত্তর জেলার প্রচার সম্পাদক আহসান হাবীব চৌধুরী হাসান, গাউসিয়া কমিটি মিডিয়া সেল প্রধান অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল, সদস্য এরশাদ খতিবী, আবু নাছের মুহাম্মদ তৈয়্যব আলী, মিনহাজুল আবেদীন, মাওলানা মোহাম্মদ শাহ আলম প্রমূখ।
শেয়ার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •