আর্থিক দুরাবস্থায় যাকাতের টাকা নেওয়া জায়েয হবে কিনা

0

মওলভী হাজী এজাহার হোসেন-
সাবেক সরকারী কর্মকর্তা
উত্তর ছনহরা, পটিয়া, চট্টগ্রাম।

প্রশ্ন: মেয়ে বিয়ে দিয়ে এখন আর্থিক দুরাবস্থায় পড়েছি, যাকাতের টাকা নেওয়া জায়েয হবে কিনা? কারা যাকাত গ্রহণ করতে পারবে এবং কাদেরকে যাকাত দেয়া না জায়েয, জানালে বাধিত হব।
উত্তর: কুরআন মজীদ ও হাদীস শরীফে এবং ফিক্বহের কিতাবসমূহে যাকাত আদায় ও প্রদানের খাতসমূহ সুনির্দিষ্ট ও বিস্তারিত বর্ণনা রয়েছে। কুরআন মজীদে ৮ শ্রেণির ব্যক্তিকে যাকাত দেয়ার বিষয়ে আল্লাহ্ তা‘আলা এরশাদ এরশাদ করেছেন-
اِنَّمَا الصَّدَقٰتُ لِلْفُقَرَآءِ وَ الْمَسٰكِیْنِ وَ الْعٰمِلِیْنَ عَلَیْهَا وَ الْمُؤَلَّفَةِ قُلُوْبُهُمْ وَ فِی الرِّقَابِ وَ الْغٰرِمِیْنَ وَ فِیْ سَبِیْلِ اللّٰهِ وَ ابْنِ السَّبِیْلِؕ-…
অর্থাৎ যাকাত কেবল নিঃস্ব, অভাবগ্রস্থ, যাকাত আদায়ে নিযুক্ত ব্যক্তি, যাদেরকে ইসলামের প্রতি মনোরঞ্জন করা হয় তাদের জন্য, দাস-দাসী মুক্তির জন্য, ঋণ গ্রস্থদের জন্য, আল্লাহর পথে তথা অভাবী মুজাহেদীনের জন্য এবং মুসাফিরের জন্য। [সূরা তাওবা, আয়াত-৬০]

যে সব আত্মীয়-স্বজন অভাবগ্রস্থ এবং যাকাত গ্রহণের উপযুক্ত তাদেরকে যাকাত দেওয়া উত্তম। যেমন ভাই, বোন, ভাতিজা, ভাগনে, চাচা, মামা, ফুফু, খালা ইত্যাদি আত্মীয় স্বজনদেরকে গরীব হলে যাকাত দেয়া যাবে। কিন্তু নিজের পিতা-মাতা, দাদা-দাদী, নানা-নানী, পরদাদা অর্থাৎ যারা তার জন্মের উৎস তাদেরকে যাকাত দেয়া যাবে না। তেমনিভাবে নিজের ছেলে-মেয়ে, নাতি-নাতনি এবং তাদের অধস্তনকে নিজ সম্পদের যাকাত দেওয়া জায়েয নয় এবং স্বামী ও স্ত্রী একে অপরকে যাকাত দেয়া জায়েয নয়। সুতরাং কেউ ইচ্ছা করলে নিজের অসহায় বোনকে যাকাতের অংশ দিতে পারবে তবে পিতা নিজের সন্তানকে যাকাত দিতে পারবে না। অবশ্য স্বীয় মেয়ের জামাতা যদি ফকির/অভাবগ্রস্থ হয় তবে তাকে জাকাত দেয়া বৈধ। সুতরাং আপনি ঋণগ্রস্থ বা অসহায় হয়ে পড়লে যাকাত গ্রহণ করতে অসুবিধা নেই।
[হেদায়া, জাকাত অধ্যায়, রদ্দুল মুহতার, ২/২৫৮, আহকামে শরীয়ত, ২য় খন্ড, কৃত. আলা হযরত ইমাম আহমদ রেযা খান বেরলভী রহ.]

শেয়ার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •