তারাবীর নামায কত রাক্আত?

0

মুহাম্মদ মুজিবুল হক-আলিম ২য় বর্ষ
জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া,
চট্টগ্রাম।
প্রশ্ন: আমরা জানি তারাবীর নামায বিশ রাক্আত। আমাদের এলাকার এক মৌলভী বলেন যে, তারাবীর নামায আট রাক্আত। বাস্তবিকপক্ষে তারাবীর নামায কত রাক্আত। জানাতে যেন আপনার মর্জি হয়।
উত্তর: তারাবীর নামায বিশ রাকআত এবং তাহলে সুন্নাতে মুয়াক্কাদা। নবী করীম সাল্লাল্লাহু তা‘আলা আলায়হি ওয়াসাল্লাম বিশ্ রাক্আত পড়েছেন এবং পরবর্তীতে সাহাবায়ে কেরাম, তাবেয়ীন, তাবয়ে তাবেয়ীন, আয়িম্মায়ে মুযতাহেদীন ও হক্কানী রব্বানী আউলিয়া কেরামও বিশ রাকআত পড়তেন। তবে কোন কোন বর্ণনায় আট রাকআতের কথা উল্লেখ থাকলেও পরবর্তীতে হযরত ওমর রাদ্বিয়াল্লাহু তা‘আলা আনহুর খিলাফতকালে সাহাবায়ে কেরামের ইযমা তথা ঐক্যমতের ভিত্তিতে তারাবীর নামায বিশ রাক্আত সুন্নাত হিসেবে নির্ধারিত হয়। নিম্নে এ প্রসঙ্গে ইসলামী শরিয়তের দলিল/প্রমাণ পেশ করা হলঃ
روى ابن ابى شيبه والطبرانى والبيهقى من حديث ابن عباس
ان النبى صلى الله عليه وسلم كان يصلى فى رمضان عشرين ركعة سوى الوتر
অর্থাৎ হযরত ইবনে আবু শায়বা, ইমাম তাবরানী এবং ইমাম বায়হাকী রাদ্বিয়াল্লাহু তা‘আলা আনহুম হযরত আবদুল্লাহ্ ইবনে আব্বাস রাদ্বিয়াল্লাহু তা‘আলা আনহু হতে বর্ণনা করেন, নবী করীম সাল্লাল্লাহু তা‘আলা আলায়হি ওয়াসাল্লাম রমযানের রাতে বিতর ব্যতীত বিশ রাক্আত (তারাবীহ্) নামায আদায় করতেন।
عن سائب بن يزيد قال كانوا يقيمون على عهد عمر بن الخطاب
فى شهر رمضان بعشرين ركعة وعلى عهد عثمان وعلى مثله
অর্থাৎ হযরত সাইব ইবনে ইয়াযীদ রাদ্বিয়াল্লাহু তা‘আলা আনহু বলেন, হযরত ওমর রাদ্বিয়াল্লাহু তা‘আলা আনহুর যামানায় তারা সকলেই রযমান মাসে বিশ রাকাত করে তারাবীর নামায পড়তেন, হযরত উসমান ও হযরত আলীর যামানায়ও তদ্রুপ ছিল।
عن يزيد ابن رومان قال كان الناس يقومون فى زمن عمر بن الخطاب بثلاث وعشرين ركعة
অর্থাৎ হযরত ইয়াযীদ ইবনে রূমান রাদ্বিয়াল্লাহু তা‘আলা ্আনহু বলেন, হযরত ওমর রাদ্বিয়াল্লাহু তা‘আলা আনহুর সময় মানুষ বিতরসহ তেইশ রাকাত তারাবীর নামার পড়তেন।
উমদাতুল কারী শরহে বোখারী ৫ম খণ্ডে উল্লেখ রয়েছে قال العلامة ابن الحجر المكى اجماع الصحابة على ان الترابيح عشرين ركعة অর্থাৎ হযরত আল্লামা ইবনে হাজর মক্কী রহমাতুল্লাহি তা‘আলা আলায়হি বলেন, সাহাবায়ে কেরাম এ কথার উপর ঐকমত্য পোষণ করেছেন যে, তারাবীর নামায বিশ রাক্আত।
উল্লিখিত আলোচনা দ্বারা প্রমাণিত হলো তারাবীর নামায বিশ রাকআত এবং এটাই হানাফী মাযহাবের অভিমত। বিশ রাক্আত তারাবীহ্ প্রথমত নবীজির হাদিস দ্বারা প্রমাণিত। দ্বিতীয়ত খোলাফায়ে রাশেদীনের সুন্নাত, তৃতীয় ইজমায়ে সাহাবা তথা সাহাবায়ে কেরামের ঐকমত্য দ্বারা প্রমাণিত। অতএব যুগ যুগ ধরে প্রচলিত বিশ রাকআত তারাবীহ্ নামাযই সঠিক, এটার বিপরীত কোন বক্তব্য ঈমানদার মুসলমানদের কাছে গ্রহণযোগ্য নয় আর যারা তারাবীর নামায বিশ রাকাতের বিরুদ্ধে ফতোয়াবাজী করে তারা মুসলমানদের মাঝে বিভেদ সৃষ্টি করতে চায়। তদুপরি হারামাঈন শরীফাইন তথা মক্কা শরীফ ও মদিনা শরীফে রমযানুল মুবারক মাসে নামাযে তারাবীহ বিশ রাকাত জামাত সহকারে আদায় করা হয়। [মুয়াত্তা ইমাম মালিক ও ওমদাতুল কারী শরহে বোখারী ইত্যাদি]

শেয়ার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •