Posts Tagged: সত্য সমাগত বাতিল অপসৃত (আহলে হাদীস)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-১)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-১)

ভূমিকা- মূল কিতাব পাঠ-পর্যালোচনার পূর্বে নিম্নলিখিত নীতিমালা অতি উত্তমরূপে পাঠ-পর্যালোচনা করে মুখস্থ করে নিন। এ নিয়ম-নীতিগুলো অতি উপকারী। নিয়ম নং-১ ‘ইসনাদ’ অনুসারে হাদীসের বহু প্রকার রয়েছে; কিন্তু আমি শুধু তিনটি প্রকারের আলোচনা করবো: ক. হাদীস-ই সহীহ্, খ. হাদীস-ই হাসান এবং গ. হাদীস-ই দ্ব‘ঈফ। প্রত্যেকটার সংজ্ঞা নিন্মরূপ সহীহ্ ওই হাদীসকে বলা হয়, যা’তে চারটি বৈশিষ্ট্য আছে- …

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-2)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-2)

তাকবীর-ই তাহরীমার সময়  উভয় কান পর্যন্ত দু’ হাত উঠানোর বিধান নামাযে তাকবীর-ই তাহরীমার সময় পুরুষদের জন্য উভয় কান পর্যন্ত দু’ হাত উঠানো সুন্নাত; কিন্তু ওহাবী গায়র-মুকাল্লিদগণ মেয়েলোকদের মতো কাঁধ দু’টি বৃদ্ধাঙ্গুলি যুগল দ্বারা স্পর্শ করে বুকের উপর হাত বাঁধে। অথচ পুরুষের জন্য হাত কান পর্যন্ত তুলে নাভীর নিচে বাঁধাই সুন্নাত। তাই প্রথমে কান পর্যন্ত হাত উঠানোর …

নাভীর নিচে হাত বাঁধা সুন্নাত (পুরুষের জন্য)

নাভীর নিচে হাত বাঁধা সুন্নাত (পুরুষের জন্য)

নাভীর নিচে হাত বাঁধা সুন্নাত (পুরুষের জন্য) গায়র মুক্বাল্লিদ-ওহাবীরা নামাযের তাকবীর-ই তাহরীমার পর বুকের উপর, নাভীর উপরে হাত বাঁধে। এর খণ্ডনে আমি এ মাসআলার আলোচনা দু’টি পরিচ্ছেদে বিন্যস্ত করেছি। প্রথম পরিচ্ছেদে আমাদের দলীলাদি এবং দ্বিতীয় পরিচ্ছেদে ওহাবী লা-মাযহাবীদের আপত্তি ও সেগুলোর জবাব (খণ্ডন) উল্লেখ করেছি। প্রথম পরিচ্ছেদ পুরুষগণ নামাযে নাভীর নিচে হাত বাঁধবে। এটা সুন্নাত। …

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-4)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-4)

নামাযে ‘বিসমিল্লাহ্’ নিরবে পড়বেন সুন্নাত হচ্ছে নামাযী সূরা ফাতিহার প্রারম্ভে ‘বিস্মিল্লাহ্ শরীফ’ নীরবে বলা, ‘আলহামদু লিল্লাহ্’ থেকে ক্বিরা’আত আরম্ভ করা; কিন্তু গায়র মুক্বাল্লিদ ওহাবী সম্প্রদায় ‘বিস্মিল্লাহ্’ও উচ্চরবে পড়ে থাকে, যা একেবারে সুন্নাত বিরোধী। ‘বিস্মিল্লাহ্’ নীরবে পড়া সম্পর্কে অনেক হাদীস শরীফ বর্ণিত হয়েছে। ওইগুলো থেকে কয়েকটা নিম্নে পেশ করা হচ্ছে। আল্লাহ্ তা‘আলা কবূল করুন! প্রথম পরিচ্ছেদ …

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-5)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-5)

ইমামের পেছনে মুক্বতাদি ক্বিরআত সম্পন্ন করবে না ইমামের পেছনে মুক্বতাদীর জন্য ক্বোরআন শরীফ পড়া (ক্বিরাআত) কঠোরভাবে নিষিদ্ধ। কিন্তু গায়র মুক্বাল্লিদ ওহাবীরা মুক্বতাদীর উপর সূরা ফাতিহা পড়া ফরয বলে জানে। এ কাজটা করা নিষিদ্ধ হবার পক্ষে ক্বোরআন-ই করীম, বহু হাদীস শরীফ, শীর্ষস্থানীয় সাহাবা-ই কেরামের অভিমতগুলো এবং যুক্তিগ্রাহ্য বহু দলীল রয়েছে। সুতরাং আমি এ অধ্যায়কেও দু’টি পরিচ্ছেদ …

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-6)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-6)

‘আ-মী-ন’ নিম্নস্বরে বলা চাই হানাফী মাযহাবানুসারে প্রত্যেক নামাযী- ইমাম হোন কিংবা মুক্বতাদী অথবা একাকী নামায সম্পন্নকারী হোন আর নামাযও ‘জাহ্রী’ (উচ্চস্বরে ক্বিরাআত বিশিষ্ট) হোক, কিংবা ‘সিররী’ (নিম্নস্বরে ক্বিরাআত বিশিষ্ট) হোক, ‘আ-মী-ন’ নিম্নস্বরে বলবেন। কিন্তু গায়র মুক্বাল্লিদ (লা-মাযহাবী) ওহাবী সম্প্রদায়ের মতে, ‘জাহরী’ নামাযে ইমাম ও মুক্বতাদী উচ্চস্বরে চিৎকার করে ‘আ-মী-ন’ বলবে। সুতরাং এ মাসআলা দু’টি পরিচ্ছেদে …

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-7)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-7)

এ মাসআলার বিপক্ষে আনীত আপত্তিসমূহ ও সেগুলোর খন্ডন এ পর্যন্ত আমরা ‘গায়র মুক্বাল্লিদ’ (লা-মাযহাবী)দের দিক থেকে এ মাসআলায় যেসব আপত্তি শুনেছি, সেগুলোর উল্লেখ খন্ডনসহকারে বিস্তারিতভাবে করার প্রয়াস পাচ্ছি। আপত্তি নম্বর-১ ‘আ-মী-ন’ দো‘আ নয়। সুতরাং যদি এটাকে উচ্চস্বরে বলা হয়, তবে ক্ষতি কি? মহান রবতো দো‘আ নি¤œস্বরে করতে নির্দেশ দিয়েছেন; অন্য কোন যিক্রের বেলায় এ নির্দেশ …

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-8)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-8)

রফ‘ই ইয়াদাঈন নিষিদ্ধ (তাকবীরে তাহরীমা ছাড়া অন্যান্য অতিরিক্ত তাকবিরগুলো বলার সময় হাত উঠাবে না) আহলে সুন্নাতের মধ্যে হানাফী মাযহাবের ইমামগণের মতে, নামাযে রফ্‘ই ইয়াদাঈন অর্থাৎ রুকূ’তে যাবার সময় এবং রুকূ’ থেকে ওঠার সময় উভয় হাত উঠানো সুন্নাতের পরিপন্থী ও নিষিদ্ধ; কিন্তু ওহাবী-গায়র মুক্বাল্লিদ (লা-মাযহাবী) এ দু’ সময়ে রফ‘ই ইয়াদাঈন করে থাকে এবং এর উপর খুব …

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-9)

আহলে হাদীস নামধারী ভ্রান্ত ও লা-মাযহাবীদের খন্ডন (পর্ব-9)

রফ‘ই ইয়াদাঈন নিষিদ্ধ (তাকবীরে তাহরীমা ছাড়া অন্যান্য অতিরিক্ত  তাকবিরগুলো বলার সময় হাত উঠাবে না) দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ এ মাসআলায় বিরুদ্ধবাদীদের আপত্তিগুলো ও সেগুলোর খন্ডন গায়র মুক্বাল্লিদ লা-মাযহাবী ওহাবীদের দিক থেকে এ পর্যন্ত ‘রফ‘ই ইয়াদাঈন’ (তাকবীর-ই তাহরীমাহ্ ব্যতীত অন্যান্য তাকবীর বলার সময় হাত উঠানো) নিষিদ্ধ হবার বিরুদ্ধে যে সব আপত্তি আমাদের নিকট পৌঁছেছে, আমরা অত্যন্ত দৃঢ়তার সাথে …

আহলে হাদিসদের একটি ভ্রান্ত ধারণা ও এর অপনোদন

আহলে হাদিসদের একটি ভ্রান্ত ধারণা ও এর অপনোদন

আহলে হাদিসদের একটি ভ্রান্ত ধারণা ও এর অপনোদন মুফতি মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান ========= মহা গ্রন্থ কুরআনুল কারীম সকল কিতাবের মধ্যে শুধু শ্রেষ্ঠই নয় মূলও। এটি সকল কিতাবের মূল ও সমস্ত জ্ঞানের প্রাণস্বরূপ। সেই কুরআনের শিক্ষা ও পরিচিতি হাদীসের মাধ্যমে জানা যায়। তাই কুরআনকে বুঝা ও চেনার জন্য পবিত্র হাদীস সম্পর্কে অবগত হওয়া অত্যন্ত জরুরী। হাদিস …