সংগঠন সংবাদ

0

সালানা ওরস মোবারক মাহফিলে বক্তারা
হযরত খাজা আবদুর রহমান চৌহরভী (রহ.)
ছিলেন উঁচু স্তরের আধ্যাত্মিক সাধক

আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট’র ব্যবস্থাপনায় চট্টগ্রাম নগরীর ষোলশহরস্থ আলমগীর খানকা-এ কাদেরিয়া সৈয়্যদিয়া তৈয়্যবিয়ায় গত ২২ জুলাই কুতুবে আলম, গাউসে দাউরা, ছাহেবে মাজমুয়ায়ে সালাওয়াত-ই রসূল, হযরত খাজা আবদুর রহমান চৌহরভী রহমাতুল্লাহি আলায়হির সালানা ওরস মোবারক উপলক্ষে খাজা আবদুর রহমান চৌহরভী ও তাঁর জীবন-কর্ম শীর্ষক আলোচনা মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তারা বলেন- খাজা আবদুর রহমান চৌহরভী রহমাতুল্লাহি আলায়হি ছিলেন উঁচু স্তরের আধ্যাত্মিক সাধক, একজন শ্রেষ্ঠ আশেকে রসূল, তরিক্বতের আধ্যাত্মিক প্রভাবে তিনি মানুষকে পরিশুদ্ধ ও পরিশীলিত করেছেন। বহু পথহারা মানুষ আল্লাহ্ ও রসূলের প্রদর্শিত সৎ পথের সন্ধান পেয়েছেন। প্রচলিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জ্ঞানার্জন না করেও খাজা চৌহরভী ছিলেন আল্লাহ্ প্রদত্ত নূরানী জ্ঞানে ভাস্বর ও বেলায়তের নক্ষত্র’। তিনি অদ্বিতীয় ত্রিশ পারা বিশিষ্ট দরূদ শরীফ গ্রন্থ ‘মাজমুয়ায়ে সালাওয়াতে রসূল’ রচনা করে ছিলেন।
এতে সভাপতিত্ব করেন আনজুমান ট্রাস্ট’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহসিন। বক্তব্য রাখেন সেক্রেটারি জেনারেল আলহাজ্ব মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, অতিথি ছিলেন এডিশনাল জেনারেল সেক্রেটারি আলহাজ্ব মোহাম্মদ সামশুদ্দিন, জয়েন্ট জেনারেল সেক্রেটারি আলহাজ্ব মোহাম্মদ সিরাজুল হক, এসিসট্যান্ট জেনারেল সেক্রেটারি আলহাজ্ব এস.এম. গিয়াস উদ্দিন শাকের, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন্স সেক্রেটারি অধ্যাপক কাজী শামসুর রহমান, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মোহাম্মদ, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ দিদারুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় গাউসিয়া কমিটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুহাম্মদ আনোয়ারুল হক, মহাসচিব আলহাজ্ব মুহাম্মদ সাহজাদ ইবনে দিদার।
জামেয়ার অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ অছিয়র রহমানের পরিচালনায় হযরত খাজা চৌহরভী রহমাতুল্লাহি আলায়হির জীবনী ও মাজমুয়ায়ে সালাওয়াতে রসূল গ্রন্থের অনন্য বৈশিষ্ট্যাবলীর উপর তকরির করেন- উপাধ্যক্ষ আল্লামা ড. মুহাম্মদ লিয়াকত আলী, আনজুমান রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক আল্লামা আবদুল মান্নান, শায়খুল হাদীস আল্লামা হাফেজ সোলায়মান আনছারী, প্রধান ফকিহ্ আল্লামা মুফতি আবদুল ওয়াজেদ, মুফাসসির আল্লামা সালেকুর রহমান আলকাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ ইলিয়াছ আলকাদেরী প্রমুখ। বাদ জোহর সমগ্র মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় মুনাজাত করেন জামেয়ার মুহাদ্দিস আল্লামা হাফেজ আশরাফুজ্জামান আলকাদেরী।

গাউসিয়া কমিটি ডবলমুলিং থানা
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ, ডবল মুরিং থানা, চট্টগ্রাম’র উদ্যোগে মাদারবাড়ী মাঝিরঘাটস্থ খানকাহ¦-এ-কাদেরিয়া সৈয়্যদিয়া তৈয়্যবিয়ায় গত ২৫ জুলাই হযরত খাজা আবদুর রহমান চৌহ্রভী(রহঃ)’র ওরস মোবারক উপলক্ষে আলোচনা সভা মীর মুহাম্মদ সেকান্দর মিয়ার সভাপতিতে¦ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, আনজুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুনিèয়া ট্রাস্ট’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ¦ মোহাম্মদ মহসিন ও বিশেষ অতিথি ছিলেন জয়েন্ট জেনারেল সেক্রেটারী আলহাজ¦ মোহাম্মদ সিরাজুল হক। এতে বক্তা ছিলেন মাওলানা মুহাম্মদ মাহ্বুবুর রহমান। উপস্থিত ছিলেন গাউসিয়া কমিটি চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মুহাম্মদ আজহারুল হক আজাদ, আলহাজ¦ মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন, মুহাম্মদ ইলিয়াছ, মুহাম্মদ সাগির, হাজী মুহাম্মদ এমরান, মুহাম্মদ রেজাউল হক মুরাদ, মুহাম্মদ শাহ্ আলম প্রমুখ।

আলমগীর খানকাহ শরীফে ২৮ তম সালানা ওরস মোবারক মাহফিলে বক্তারা-
আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রা.) ছিলেন
মুসলিম মিল্লাতের পথপ্রদর্শক ও অনন্য সংস্কারক

আন্জুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট আয়োজিত ২৮ তম সালানা ওরস মোবারক মাহফিলে বক্তারা বলেন, উপমহাদেশের প্রখ্যাত আধ্যাত্মিক সাধক আওলাদে রাসুল, রাহনুমায়ে শরিয়ত ও তরিকত আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রহ.) মুসলমানদের ক্বোরআন-সুন্নাহর আলোকে শরীয়ত ও তরিকতের সমন্বয়ে জীবন গঠনের পথ নির্দেশনা দিয়ে গেছেন। তিনি ছিলেন রাসূল আদর্শের বাস্তব প্রতিচ্ছবি-মুসলিম মিল্লাতের উজ্জ্বল আলোকবর্তিকা, দ্বীন ইসলামের অনন্য সংস্কারক ব্যক্তিত্ব। বিশ^ মুসলিমের ক্রান্তিকালে বহুমুখি ফিত্নার এ সময়ে হযরত তৈয়্যব শাহ (রহ.)’র পথ নির্দেশনা মুসলমানদের ঈমান আকিদা রক্ষায় নিয়ামকের ভূমিকা পালন করবে। শাহানশাহে সিরিকোটি (রা.) এর প্রতিষ্ঠিত এশিয়া বিখ্যাত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার আদলে রাজধানী ঢাকায় কাদেরিয়া তৈয়বিয়া কামিল মাদরাসা, চন্দ্রঘোনা তৈয়্যবিয়া অদুদীয়া ফাজিল মাদরাসা, মাদ্রাসা-এ তৈয়্যবিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া মহিলা মাদরাসাসহ বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে অসংখ্য দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ, খানকা প্রতিষ্ঠা, জস্নে জুলুসে ঈদে মিলাদুন্নবী প্রবর্তনসহ অসংখ্য সংস্কারমূলক কর্মসূচী দিশেহারা মানবতাকে খোদাভীরু ও তাকওয়ার উপর প্রতিষ্ঠিত করে ইনসানে কামিলে পরিণত করেছে। বিশেষতঃ তাঁর প্রতিষ্ঠিত দেশের সর্ববৃহৎ আধ্যাত্মিক সংগঠন গাউসিয়া কমিটি আজ দেশে বিদেশে দিকভ্রান্ত তরুণ-যুবকদের ইসলামের সঠিক পথ ও মতে ঐক্যবদ্ধ করছে। গাউসিয়া কমিটির নিবেদিত কর্মীগণ বর্তমান বৈশি^ক মহামারী করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতদের দাফন-কাফন ও রোগীদের অক্সিজেন সেবা দিয়ে জাতির চরম দুঃসময়ে একনিষ্ঠ সেবকের ভূমিকা পালন করছে। তাঁর প্রতিষ্ঠিত মাসিক পত্রিকা তরজুমান-এ আহলে সুন্নাত ক্বোরআন-সুন্নাহ্’র সঠিক মতাদর্শ প্রচার প্রসারের মাধ্যমে মুসলমানদের ঈমান-আক্বিদা ও আমলের পরিশুদ্ধি সাধনে দিশারি হিসেবে কাজ করছে। বক্তারা এ মহান অলিয়ে কামিলের জীবন দর্শন অনুসরণ ও তাঁর নির্দেশনা বাস্তবায়নে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। গত ৬ আগস্ট ২০২০, বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম ষোলশহরস্থ জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদ্রাসা সংলগ্ন আলমগীর খানকা শরীফে আনজুমান ট্রাস্ট’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ¦ মুহাম্মদ মহসিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মাহফিলে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আন্জুমান ট্রাস্ট’র সেক্রেটারি জেনারেল আলহাজ¦ মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, আলোচনায় অংশ নেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান আল্লামা কাজী মঈনুদ্দিন আশরাফি, আনজুমান ট্রাস্টের এডিশনাল জেনারেল সেক্রেটারি আলহাজ¦ মুহাম্মদ সামশুদ্দিন, জয়েন্ট সেক্রেটারি আলহাজ¦ মুহাম্মদ সিরাজুল হক, এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি আলহাজ¦ এস.এম. গিয়াস উদ্দিন শাকের, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন সেক্রেটারি অধ্যাপক কাজী শামসুর রহমান, জামেয়ার চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মুহাম্মদ দিদারুল ইসলাম, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার অধ্যক্ষ আল্লামা সৈয়দ অছিয়র রহমান আলকাদেরি, আন্জুমান রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক আল্লামা এম.এ. মান্নান, জগন্নাথ বিশ^বিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. আবদুল অদুদ, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার প্রধান ফকিহ্ আল্লামা কাজী মুহাম্মদ আব্দুল ওয়াজেদ, শায়খুল হাদিস আল্লামা হাফেজ সোলায়মান আনসারী, মুহাদ্দিস আল্লামা হাফেজ মুহাম্মদ আশরাফুজ্জামান আলকাদেরী, অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ বদিউল আলম রিজভী, অধ্যাপক সৈয়দ মুহাম্মদ জালাল উদ্দিন আযহারী, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ পেয়ার মোহাম্মদ কমিশনার, ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আনোয়ারুল হক, মহাসচিব শাহজাদ ইবনে দিদার, যুগ্ন মহাসচিব এড. মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার, মাওলানা গোলাম মোস্তফা মুহাম্মদ নুরুন্নবী ও হাফেজ মাওলানা আনিসুজ্জমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার উপাধ্যক্ষ আল্লামা ড. লিয়াকত আলী, ডা.খাস্তগীর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সি.সহকারী শিক্ষক মাওলানা আবদুল মান্নান, গাউসিয়া কমিটি চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সভাপতি কমর উদ্দিন সবুর, চট্টগ্রাম মহানগর সদস্য সচিব সাদেক হোসেন পাপ্পু, চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সাধারণ সম্পাদক এড. মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, দক্ষিণ জেলার সেক্রেটারি মুহাম্মদ হাবিবুল্লাহ মাস্টার, অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল, আলহাজ্ব মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল্লাহ্ প্রমুখ। উল্লেখ্য যে, ওরস মোবারক মাহফিলে একজন সনাতনধর্মী পবিত্র ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। ওরস মোবারক উপলক্ষে খানকা শরীফে বাদে ফজর হতে খতমে কোরআন, খতমে গাউসিয়া শরীফ, খতমে মজমুআহ্-এ সালাওয়াতে রাসূল, খতমে বোখারী শরীফ আদায় করা হয়।

রংপুর জেলা গাউসিয়া কমিটি
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ রংপুর জেলা শাখা কতৃক আয়োজিত শহরের নিউ ইঞ্জিনিয়ার পাড়ায় আওলাদে রাসুল হযরতুল আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ (রহ.) এর পবিত্র ওরস মুবারক উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনার শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন রংপুর জেলা গাউসিয়া কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল কাদির খোকন। হুজুর কেবলা আল্লামা তৈয়্যব শাহ রহ. এর জীবনীর উপর আলোচনা করেন মাওলানা মোহাম্মদ আবুল কাশেম, বক্তব্য রাখেন মাওলানা মোহাম্মদ সাহিদার রহমান, মাওলানা মোহাম্মদ আইয়ুব আলী আনসারি। উপস্থিত ছিলেন জেলা গাউসিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান শরিফ বাবলু, মুহাম্মাদ হাছান আলী, আলহাজ্ব মুজিবুর রহমান দাওয়াতে খায়ের সম্পাদক রংপুর জেলা গাউসিয়া কমিটি, মাওলানা নুরুল ইসলাম সুপার কেল্লাবন্দ আদর্শ দাখিল মাদ্রাসা রংপুর, মাওলানা আব্দুস সালাম, মুহাম্মাদ মুশতাক আহমদ প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মাওলানা সাহিদার রহমান। মুনাজাত করেন মাওলানা মোহাম্মদ আইয়ুব আলী আনসারি।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত চট্টগ্রাম মহানগর
আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে আওলাদে রাসুল হাফেজ কারী সৈয়দ মোহাম্মদ তৈয়ব শাহ্ (রহ.) এর ২৮তম ওরস উপলক্ষে এক স্মারক আলোচনা মাওলানা নূর মোহাম্মদ আলকাদেরীর সভাপতিত্বে ও মোহাম্মদ দস্তগীর আলমের সঞ্চালনায় গত ৮ আগস্ট অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মাওলানা জামিউল আকতার আশরাফী। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ মাওলান বদিউল আলম রেজভী, সৈয়দ মোহাম্মদ আবদুল মান্নান, উপাধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল আজিজ আনোয়ারী, মাওলানা সেকান্দর হোসেন আলকাদেরী, সৈয়দ মোহাম্মদ মনছুরুর রহমান, মাওলানা আবদুন্নবী আলকাদেরী, মাওলানা শফিউল হক আশরাফী, লেখক জসিম উদ্দিন মাহমুদ, মাস্টার আবুল হোসেন, মাওলানা আবুল কাসেম তাহেরী, মাওলানা সোহাইল আনচারী, নুরুল্লাহ রায়হান খান, হাফেজ মাওলানা নুরুল আলম, ডা. ফজল আহমদ, শায়ের মোকতার আহমদ রেজভী, মাওলানা আমিনুর রশিদ, খ.ম. নজরুল হুদা, মাওলানা গিয়াস উদ্দিন নিজামী, মোহাম্মদ মুছা, মোহাম্মদ আবুল হাসান, এড. আনিসুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান রেজভী, আলী আশরাফ, মোহাম্মদ হাফেজ নুর, মোহাম্মদ মহিউদ্দিন আশরাফী, মাওলানা আবদুল খালেক, আবু তৈয়ব রেজাউল মোস্তফা, আবদুল খালেক, জহির উদ্দিন প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন, আল্লামা তৈয়ব শাহ্ (রা:) ছিলেন যুগের শ্রেষ্ঠ সংস্কারক ও মুসলমানদের ঐক্যের প্রতীক। জশনে জুলুসের মাধ্যমে তিনি সকল মুসলমানদের ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে এক কাতারে আনতে সক্ষম হয়েছেন।

মাদরাসা-এ তৈয়্যবিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া
মাদরাসা-এ তৈয়্যবিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া ফাযিল (ডিগ্রী)’র ব্যবস্থাপনায় গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ বন্দর ও পতেঙ্গা থানা শাখার সহযোগিতায় গাউসে জমান আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ (র.)’র ২৮তম সালানা ওরস মোবারক মাদরাসা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। গত ১৭ আগস্ট অনুষ্ঠিত মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন ওরস উদযাপন কমিটির আহবায়ক আলহাজ¦ মোহাম্মদ ইলিয়াছ, ওরস উদযাপন কমিটির সচিব আলহাজ¦ মোহাম্মদ হাসান’র সঞ্চালনায় প্রধান আলোচক ছিলেন, মাদরাসার অধ্যক্ষ আল্লামা মুহাম্মদ বদিউল আলম রিজভি, তকরীর করেন মুফতি এ এস এম জালাল উদ্দিন ফারুকী, মাওলানা ছগীর আহমদ আলকাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ ইউনুছ তৈয়বী, মাওলানা মুহাম্মদ এনাম উদ্দিন, মাওলানা মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ। আলোচনায় অংশ নেন মুহাম্মদ সাহাব উদ্দিন, মুহাম্মদ মুসলিম উদ্দিন, আলহাজ¦ জাহাঙ্গীর আলম, আলহাজ¦ মোজাহের আহমদ, মোহাম্মদ আলমগীর, আলহাজ¦ মোজাফফর আহমদ, হাজী দিদারুল আলম, মোহাম্মদ মাঈনুল ইসলাম, আলহাজ¦ মহসিন, মাহফিলে শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.), গাউসিয়া কমিটি বন্দর থানা শাখার সাবেক সভাপতি মরহুম আলহাজ¦ মোহাম্মদ সেলিম, মাদরাসার সাবেক সহ-সভাপতি মরহুম আলহাজ¦ নুরুল আলম এর জীবন-কর্মের উপর স্মৃতিচারণ করা হয়। হুযুরের শানে মানকাবাদ পাঠ করেন মাদরাসার সাবেক ছাত্র মাওলানা মুহাম্মদ আবছার রেযা কাদেরী, মিলাদ পাঠ করেন সাবেক ছাত্র মাওলানা আবদুল্লাহ আল নোমান, পরিশেষে দেশ জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সুখশান্তি সমৃদ্ধি কামনা ও বৈশি^ক মহামারী কারোনা থেকে মুক্তির প্রার্থনা জানিয়ে দুআ মুনাজাত করেন অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ বদিউল আলম রিজভি। মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদ’র চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মুহাম্মদ মনজুর আলম মনজু’র সৌজন্যে মাহফিলে তাবাররুক বিতরনের মধ্য দিয়ে সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।

মাঝিরঘাট খানকাহ¦-এ-কাদেরিয়া সৈয়্যদিয়া তৈয়্যবিয়া
খানকাহ¦-এ কাদেরিয়া সৈয়্যদিয়া তৈয়্যবিয়া, মাদারবাড়ি মাঝিরঘাটস্থ চট্ট্রগ্রাম পরিচালনা পর্ষদের উদ্যোগে গত ৮ আগস্ট গাউসে জমান হযরত সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রহঃ)’র ওরস মোবারক ও আলোচনা সভা খানকাহ্ শরীফের সভাপতি আলহাজ¦ মুহাম্মদ জামাল উদ্দিনের সভাপতিতে¦ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, আনজুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুনিèয়া ট্রাস্ট’র জয়েন্ট জেনারেল সেক্রেটারী আলহাজ¦ মোহাম্মদ সিরাজুল হক। এতে প্রধান বক্তা ছিলেন জামেয়া আহমদিয়া সুনিèয়া কামিল মাদ্রাসার শায়খুল হাদীস হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ সোলাইমান আনসারী ও বিশেষ বক্তা ছিলেন আলহাজ¦ মাওলানা মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন আলকাদেরী। এতে উপস্থিত ছিলেন, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরের সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও অত্র খানকাহ্ শরীফের সহ-সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ আজহারুল হক আজাদ, সহ-সভাপতি মুহাম্মদ দিদারুল আলম, সহ-সভাপতি মুহাম্মদ ইলিয়াছ, আলহাজ¦ মুহাম্মদ ফয়েজুর রহমান, হাজী মুহাম্মদ এমরান, প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ শাহ্ আলম প্রমুখ।

লোহাগাড়া উপজেলা গাউসিয়া কমিটি
গাউসিয়া কমিটি লোহাগাড়া উপজেলা শাখা ও আল্লামা গাজী মুহাম্মদ আব্দুস সবুর সিদ্দীকী রাহঃ ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় গাউসে জমান, রাহনুমায়ে শরিয়ত ও তরিকত, আওলাদে রাসুল, আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রহ.)’র সালানা ওরস মোবারক ও জামেয়ার সাবেক মুদাররিস, মুজাহিদে আহলে সুন্নাত,বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন হযরতুল আল্লামা গাজী মুহাম্মদ আব্দুস সবুর সিদ্দীকী রাহঃ এর ওফাত বার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল ১১ জিলহজ্ব, রবিবার,লোহাগাড়া পদুয়া ছগিরাপাড়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে মাওলানা মুহাম্মদ জসিমুদ্দীন আলকাদেরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ অছিয়র রহমান আলকাদেরী, প্রধান বক্তা ছিলেন- বিশিষ্ট ইসলামীক স্কলার,আল্লামা সৈয়দ মুহাম্মদ হাসান আল আযহারী, বিশেষ অতিথি ছিলেন মাওলানা মিশকাতুল ইসলাম আলকাদেরী, মাওলানা মঈনুদ্দীন কাদেরী, মাওলানা আব্দুল মজীদ।
প্রধান অতিথি হুজুর কেবলা আল্লামা তৈয়্যব শাহ রাহমাতুল্লাহি আলাইহির বিভিন্ন অবদান উল্লেখ করে বলেন- ইসলামী শিক্ষা ও মূল্যবোধ বিস্তারে, শরিয়ত-তরিকত প্রসারে হুজুর কেবলার অবদান আজীবন চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি আরো বলেন-আল্লামা গাজী মুহাম্মদ আব্দুস সবুর সিদ্দীকী রাহঃ হুজুর কেবলার মুরিদ, দরবারে সিরিকোট ও সুন্নিয়তের একনিষ্ট খাদেম ছিলেন। সুন্নিয়ত প্রচার-প্রসারে তিনি অকুতোভয় ছিলেন।
এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- গাউসিয়া কমিটি লোহাগাড়া উপজেলার উপদেষ্টা বীরমুক্তিযোদ্ধা মনির আহমদ সিকদার,প্রফেসর মাওলানা মুস্তাক আহমদ, মাওলানা আবু তাহের, মাওলানা কামাল উদ্দীন, মুহাম্মদ ফারুক, মাওলানা মুহাম্মদ বোরহান উদ্দীন, মাওলানা তাওহীদুল ইসলাম, মাওলানা এনামুল হক, মাওলানা এহসান উদ্দীন, মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, অছিয়র রহমান, হাফেজ মিযানুর রহমান, শাজরিল আওয়াল শিফাইন, আব্দুল্লাহ জাওয়াদ, আফনান, আবু হুরায়রা শাইয়ুন, রিদুয়ান, রাকিব প্রমুখ।

গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ পাহাড়তলী থানা শাখা
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ পাহাড়তলী থানা শাখার উদ্যোগে আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ (রহ.) এর ওরশ মাহফিল গত ১৪ আগস্ট সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুহাম্মদ আইয়ুব এর সভাপতিত্বে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মুসলিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় হাজী আবদুল আলী জামে মসজিদ চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। তকরির পেশ করেন পাহাড়তলী থানা দাওয়াতে খাইর সম্পাদক হাফেজ মাওলানা আবদুল হালিম। এতে উপস্থিত ছিলেন মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, মুহাম্মদ আলাউদ্দিন খান, হাজী মুহাম্মদ ইউসুফ আলী, কাজী মুহাম্মদ আবদুল হাফেজ, কাজী মুহাম্মদ রবিউল হোসাইন, কামাল আহমদ মজু, মুহাম্মদ মাসুদ মিয়া, হামিদুল ইসলাম হাসিব, মুহাম্মদ সাহাবুদ্দিন, নাঈমুল হাসান তানভীর, মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন, মুহাম্মদ আকবর মিয়া, মুহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম জিকু, মুহাম্মদ ওয়াহিদুল আলম, মুহাম্মদ ইলিয়াছ, মুহাম্মদ আলী হোসেন, মুহাম্মদ আ.ফ.ম মঈনুদ্দীন, মুহাম্মদ আলমগীর, মুহাম্মদ আজিম, মুহাম্মদ আবদুল মন্নান, মুহাম্মদ ওয়াহিদ, মুহাম্মদ আকবর, মুহাম্মদ আরমান হোসেন, মুহাম্মদ সাজ্জাদুল ইসলাম প্রমুখ।

শাহমীরপুর তৈয়্যবিয়া নুরুল হক জামে মসজিদ শাখা গাউসিয়া কমিটি
মুর্শিদে বরহক, হাফেজ ক্বারী আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ রহ. এর ২৮ তম সালানা ওরশ মোবারক উদ্যাপন এবং শেরে মিল্লাত মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রাহঃ) এর স্মরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল গত ৭ আগস্ট গাউসিয়া কমিটি তৈয়্যবিয়া মৌলানা নুরুল হক (রাহঃ) জামে মসজিদ ইউনিট শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিল সঞ্চালনায় ছিলেন আলহাজ্ব মাওলানা মোহাম্মদ শামশুল আলম আলকাদেরী। এতে সভাপতিত্ব করেন হযরত মৌলানা মুহাম্মদ ইউসুফ ফায়জী। প্রধান অতিথি ছিলেন মহানগর গাউসিয়া কমিটির যুগ্ম সম্পাদক আলহাজ্ব ছাবের আহমদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইলিয়াস মুন্সী, প্রধান বক্তা ছিলেন মুহাম্মদ নুরুল হক আলকাদেরী (কুসুমপুরী)। বিশেষ বক্তা ছিলেন অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ হাসান রেজবী, অধ্যক্ষ মাওলানা এম.এ মান্নান। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মৌলানা আবু তৈয়ব মুহাম্মদ একরামুল হক আলকাদেরী, মৌলানা মুহাম্মদ ইসমাইল, মৌলানা মুহাম্মদ রফিক ছিদ্দীকি, মৌলানা মুহাম্মদ মাবুদ, মৌলানা মুহাম্মদ শওকত, মৌলানা মুহাম্মদ হোসাইন, মৌলানা মুহাম্মদ আব্দুর নুর, মৌলানা মুহাম্মদ মহিউদ্দীন, মুহাম্মদ নুর হোসেন, সাংবাদিক মুহাম্মদ আব্দুল করিম সেলিম, মুহাম্মদ নাছির মেম্বার, মুহাম্মদ আলী (মিয়া), মুহাম্মদ আব্দুল মালেক, নুর মুহাম্মদ, মুহাম্মদ ফারুক, মামুন, আমির, ইলিয়াস, ইদ্রিস, ইসকান্দর, আব্দুল আজিজ, মুহাম্মদ রফিক।

গাউসিয়া কমিটি মাঝিরপাড়া শাখা
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ হাটহাজারী চিকনদন্ডী ইউনিয়নস্থ মাঝিরপাড়া শাখা ও মাঝিরপাড়া বায়তুন্ নুর জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির যৌথ ব্যবস্থাপনায় রাহনুমায়ে শরীয়ত ও ত্বরিকত আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ রহমাতুল্লাহি আলায়হির সালানা ওরস মোবারক ও মাসিক খতমে গাউসিয়া শরীফ মাঝিরপাড়া বায়তুন্ নুর জামে মসজিদের খতিব মাওলানা ইদ্রিস আনছারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আনজুমান রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক আল্লামা মুহাম্মদ আবদুল মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি চিকনদন্ডী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আব্দুল মালেক চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন মাঝিরপাড়া শাখার উপদেষ্টা যথাক্রমে উপদেষ্টা হাজী মুহাম্মদ জানে আলম, হাজী মুহাম্মদ লোকমান, হাজী মুহাম্মদ ইউসুফ কোম্পানী, হাজী আহমদ হোসেন, মুহাম্মদ সেলিম চেয়ারম্যান, মুহাম্মদ শওকত আলী ও আলহাজ্ব মুহাম্মদ হারুন। সংগঠনের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোতালেব চৌধুরী, আলহাজ্ব কামাল কোম্পানী, মুহাম্মদ আলী, মুহাম্মদ মুস্তাফিজুর রহমান, মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন, মুহাম্মদ ফোরকান, মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন, মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান, মুহাম্মদ মোফাছেল, মুহাম্মদ মাসুদ আলী, গোলাম মুহাম্মদ, হাফেজ উমর ফরিদ, মুহাম্মদ আবু তাহের (বাবুল), মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম, মুহাম্মদ হারুন।
প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, সিলসিলা-ই কাদেরিয়া সিরিকোটি আলিয়ার পরম সম্মানিত মুর্শিদগণের এদেশে বরকতমন্ডিত পদার্পনের ফলে ইসলাম ও মুসলমানদের বিশেষতঃ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআতের অসাধারণ কল্যাণ সাধিত হয়। বিশেষত হুযূর ক্বেবলা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ আলায়হির রাহমাহ্র অবদানগুলো স্বর্ণাক্ষরে লিপিবদ্ধ করে রাখার মতো। প্রত্যেকে নিজের আক্বীদা ও আমলের বিশুদ্ধি ও উভয় জাহানের সাফল্য লাভের জন্য এ সিলসিলার সাথে সম্পৃক্ততা ও এর খিদমতের বিকল্প বর্তমান যুগে বিরল।

লালিয়ারহাট জামে মসজিদ
হাটহাজারী উপজেলার লালিয়ারহাট জামে মসজিদে হুজুর কেবলা সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রহ.)’র বার্ষিক ওরস মোবারক মাহফিল গত ১৫ আগস্ট বাদ এশা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আনজুমান রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালক আল্লামা মুহাম্মদ আবদুল মান্নান
বিশেষ অতিথি ছিলেন মাওলানা মুহাম্মদ মোখতার, মাওলানা মুহাম্মদ ইদ্রিস আনসারী, মাওলানা সৈয়দ মাহমুদ রেযা, মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ নুরুল আনওয়ার, মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ আবদুল মান্নান ও মাওলানা মুহাম্মদ সানা উল্লাহ্।

গাউসিয়া কমিটি কচুয়াই ফারুকী পাড়া শাখা
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ কচুয়াই ফারুকীপাড়া শাখার উদ্যোগে এলাকার সর্বস্তরের ধর্মপ্রাণ মুসলিম জনতার সহযোগিতায় কচুয়াই ফারুকীপাড়া বায়তুর রহমত জামে মসজিদে গত ১৪ আগস্ট এনামুর রশিদ ফারুকীর সঞ্চালনায়, মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম ফারুকীর সভাপতিত্বে আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রহ.) এর ২৮ তম সালানা ওরস মোবারক অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতী সৈয়্যদ মোহাম্মদ অছিয়র রহমান। বিশেষ আলোচক ছিলেন লালারখিল কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব মাওলানা মোহাম্মদ আবুতারেক মিয়াজী, মাওলানা হাফেয মোহাম্মদ আবদুল জব্বার, মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক আলক্বাদেরী ও ফরুকীপাড়া বায়তুর রহমত জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মোহাম্মদ ওসমান গনি। মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি পটিয়া উপজেলা সভাপতি মোহাম্মদ মাহবুবুল আলম এম.কম। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি পটিয়া উপজেলা সেক্রেটারী মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম চৌধুরী (শামীম), যুগ্ম -সাধারণ সম্পাদক ও কচুয়াই ইউনিয়ন সভাপতি জাকির হোসেন মেম্বার, মাওলানা আলহাজ¦ কাজী মোহাম্মদ সোলাইমান চৌধুরী, মুহাম্মদ শওকত আলী চৌধুরী। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন আলহাজ¦ মোহাম্মদ ইউনুছ ফারুকী, মোহাম্মদ গোলাম মাওলা ফারুকী, মোহাম্মদ মোরশেদ ফারুকী, রেজাউল করিম ফারুকী, খন্দকার শামসুল আলম, মাওলানা নুরুল আলম ফারুকী, মোহাম্মদ আলী, এমদাদ হোসেন চৌধুরী, আশিক চৌধুরী, ব্যাংকার মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন, হাইদগাঁও ইউনিয়ন সেক্রেটারী মোহাম্মদ মনযুর আলম, সনহরা ইউনিয়ন সেক্রেটারী আবু জাফর, আবুল কাশেম মাস্টার প্রমুখ।
মাহফিলে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন, মোহাম্মদ আয়ুব ফারুকী, মোহাম্মদ আবদুল খালেক ফারুকী, মোহাম্মদ আলাউদ্দিন ফারুকী, মোহাম্মদ জাওয়াদ ফারুকী, মোহাম্মদ হাবীবুর রহমান ফারুকী, মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ফারুকী, মোহাম্মদ জোবায়েদ উল্লাহ ফারুকী, মুহাম্মদ মাসুদ ফারুকী, মোহাম্মদ জাহেদ ফারুকী, মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম ফারুকী (বাবু), মোহাম্মদ রিদুয়ানুল ইসলাম ফারুকী (রিমু) প্রমুখ।

গাউসিয়া কমিটি লতিফপুর ওয়ার্ড
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ পাহাড়তলী থানার আওতাধীন লতিফপুর ওয়ার্ডের উদ্যোগে গত ১৩ আগস্ট হাফেজ ক্বারী সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রহ.)’র ফাতেহা ও ওরস মোবারক পাকা রাস্তার মাথা মদনী জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ জসিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় ও ওয়ার্ডের সভাপতি মুহাম্মদ ফেরদৌস মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি চট্টগ্রাম মহানগর সদস্য সচিব আলহাজ্ব সাদেক হোসেন পাপ্পু, প্রধান বক্তা ছিলেন মদনী জামে মসজিদের খতিব মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ আবু নওশদ নঈমী, এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন পাহাড়তলী থানা গাউসিয়া কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হারুন, পাহাড়তলী থানার অর্থ সম্পাদক কামাল আহমেদ মজু, প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ মাসুদ মিয়া। ১২নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক হাজী মুহাম্মদ ইউসুফ, ১০নং উত্তর কাট্টলীর সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মুহাম্মদ মফিজুর রহমান বক্তব্য রাখেন, ১০নং উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের সাংগঠনিক সম্পাদক কে.এম. নুরুদ্দিন চৌধুরী, ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের সভাপতি মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, বিশেষ অতিথি ছিলেন মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আজম খান, মাওলানা দিদারুল ইসলাম কাদেরী, মুহাম্মদ জাবেদ হোসেন, মুহাম্মদ ফরহাদ হোসেন বাদশা, মুহাম্মদ সাজরাতুল ইয়াকিন শাওয়াল, জিয়াউদ্দিন সুমন, মুহাম্মদ জাহেদুল রশিদ, মাওলানা শেখ জাকারিয়া, মুহাম্মদ আবু নাসের, রবিউল হোসেন, ইব্রাহীম শাকিল, কাজী তৌহিদ আজম সাজ্জাদ, কাজী তৈয়্যব আজম কাউসার, ফেরদৌস ওয়াহিদ, জাকির হোসেন, মুহাম্মদ রুবেল, আব্দুল মান্নান, মুহাম্মদ জয়নাল রেজাউল করিম।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ এর সাধারণসভা ও স্মরণসভায় বক্তারা-
শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবায়দুল হক নঈমী (রহ.) ছিলেন সুন্নি মুসলমানদের ঐক্যের প্রতীক

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত সংগঠনের চেয়ারম্যান শেরে মিল্লাত মুফতি ওবায়দুল হক নঈমী (রহ.) এর স্মরণসভায় বক্তারা বলেন, আল্লামা মুফতি ওবায়দুল হক নঈমী একজন জগতবিখ্যাত ইসলামী জ্ঞান বিশারদ ছিলেন। তার জ্ঞানগভীর পান্ডিত্য, বিচক্ষণতা ও দূরদর্শিতা তাঁকে স্বমহিমায় উদ্ভাসিত করেছে। তিনি একাধারে একজন শিক্ষক, ইলমে হাদিস, ফিকহ্ ও তাফসির বিশারদ, সুকণ্ঠের অধিকারী অনলবর্শী বক্তা, সিলসিলায়ে আলিয়া কাদেরিয়ার মূখপাত্র ও সুন্নিয়তের প্রচারক। সুন্নিয়তের ময়দানে তিনি হয়ে উঠেছিলেন সুন্নি মুসলমানদের ঐক্যের মূর্তপ্রতীক। গত ১২ আগস্ট, চট্টগ্রাম নগরীর বহদ্দারহাটস্থ আর.বি.কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত স্মরণসভায় সভাপতিত্ব করেন, সংগঠনের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আল্লামা কাজী মঈনুদ্দিন আশরাফী। প্রধান অতিথি ছিলেন, আন্জুমান-এ-রাহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মুহাম্মদ মহসিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সংঠনের মহাসচিব পীরে তরিকত আল্লামা সৈয়দ মছিহুদ্দৌলাহ, বক্তব্য রাখেন, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ এর নির্বাহী চেয়ারম্যান পীরে ত্বরিকত আল্লামা আবদুল বারী জিহাদী, কো-চেয়ার‌্যান অধ্যক্ষ আল্লামা সৈয়দ অছিয়র রহমান, আল্লামা হাফেজ সোলায়মান আনসারী, পীরে তরিকত আল্লামা আবদুস শুক্কুর নক্সবন্দী, সংগঠনের স্থায়ী কমিটির সদস্য মাওলানা এম.এ. মতিন, মাওলানা স.উ.ম. আবদুস সামাদ, সংগঠনের মূখপাত্র এড. মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার, প্রেসিডিয়াম সদস্য যথাক্রমে, আল্লামা কাজী আবদুল ওয়াজেদ, আল্লামা আশরাফুজ্জমান আলকাদেরী, অধ্যক্ষ আল্লামা হারুন উর রশীদ চৌধুরী, পীরে তরিকত আল্লামা শেখ সাদী আবদুল্লাহ সাদেকপুরী, পীরে তরিকত মাওলানা মোহাম্মদ আলী মমতাজী, মাওলানা বদিউজ্জমান হামদানী, পীরে তরিকত মাওলানা শাহ পরান মাখদুম, অধ্যক্ষ ড. এ কে এম মাহবুবুর রহমান, আনজুমান এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট এর এসেস্টেন্ট সেক্রেটারি এস.এম. গিয়াস উদ্দীন শাকের, গাউসিয়া কমিটির কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মোহাম্মদ কমিশনার, ড. আবদুল আউয়াল, ড. হাফিজুর রহমান, মাওলানা আমিনুল ইসলাম আকবরী, মাওলানা আবুল কালাম বয়ানী, পীরজাদা মাওলানা গোলামুর রহমান আশরাফ শাহ, অধ্যক্ষ মাওলানা তৈয়ব আলী, হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন, মাওলানা খাজা মোবারক আলী মমতাজী, অধ্যক্ষ মাওলানা বদিউল আলম রিজভী, মাওলানা আমিনুল ইসলাম আকবরী, মাওলানা জালাল উদ্দিন আখঞ্জি, মাওলানা আবদুল মজিদ হাসানী, অধ্যক্ষ মাওলানা খলিলুর রহমান নিজামী, মাওলানা ইঞ্জিনিয়ার সামশুল আলম কাজল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর টিপু, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের নির্বাহী সদস্য পীরজাদা মুহাম্মদ মহরম হোসাইন, মাওলানা সরওয়ার আকবর, কাজী মাওলানা মোবারক হোসেন ফরাজী, পীরজাদা মাওলানা আশিকুর রহমান হাফেজনগরী, মাওলানা আবুল কাসেম আনসারী, মৌলানা লুৎফুল বারী, মাওলানা সৈয়দ মোজাফ্ফর আহমদ, অধ্যক্ষ মাওলানা ইসমাঈল নোমানী, উপাধ্যক্ষ মাওলানা জুলফিকার আলী, মাওলানা জসিম উদ্দিন আলকাদেরী প্রমূখ। আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত বাংলাদেশের নির্বাহী মহাসচিব উপাধ্যক্ষ আল্লামা আবুল কাসেম ফজলুল হক ও দপ্তর সম্পাদক মাওলানা আবদুল হাকিমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় অন্যান্যদের উপস্থিত ছিলেন, এড. মোখতার আহমদ চৌধুরী, অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল, ইঞ্জিনিয়ার আমান উল্লাহ, আলহাজ্ব মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, এরশাদ খতিবী, মাস্টার আবুল হোসাইন। উল্লেখ্য, স্মরণসভার আগে সংগঠনের সাধারণ সভা প্রবীন আলেমেদ্বীন আল্লামা আবদুল বারী জিহাদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সাধারণ সভায় চেয়ারম্যান আল্লামা মুফতি ওবায়দুল হক নঈমীর স্থলাভিষিক্ত হিসাবে শায়খুল হাদিস আল্লামা কাজী মঈনুদ্দিন আশরাফীকে চেয়ারম্যান এবং আল্লামা আবদুল বারী জিহাদীকে নির্বাহী চেয়ারম্যান হিসাবে সর্বসম্মতিক্রমে ঘোষণা করা হয়।

বলুয়ারদীঘি খানকায় চেহলাম শরীফ মাহফিলে বক্তাদের অভিমত
শেরে মিল্লাত নঈমী আপন পীর-মুরশিদের প্রতি নিবেদিত
ছিলেন বলেই তিনি সকলের কাছে স্মরণীয়-বরণীয়
সিলসিলায়ে আলীয়া কাদেরীয়া, সিরিকোট শরীফের আজীবন মুখপাত্র, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা‘আত বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান, শায়খুল হাদিস, শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.)’র চেহলাম শরীফ মাহফিলে বক্তারা বলেছেন, তাঁর খেদমত আল্লাহর দরবারে কবুল হয়েছে তাই তাঁর ইন্তেকালের পরও মহামারী করোনার কঠিন সময়েও প্রতিদিন বিভিন্ন জায়গায় যেভাবে শেরে মিল্লাত নঈমী (রহ.)’র স্মরণ ও দোয়া মাহফিল চলছে তাতেই বুঝা যায় তাঁর সারা জীবনের খিদমত আল্লাহ-রাসুল(দ.) ও হযরাতে আউলিয়ায়ে কেরামের কাছে কবুল হয়েছে নিঃসন্দেহে। কুরআন-হাদিস, ফিকহ-ফতোয়াসহ ইত্যাদি বিষয়ে এক অনন্য ইসলামি জ্ঞান বিশারদ শুধু নন তিনি রাসুল (দ.)’র শানে যুক্তি-তর্কে বাতিলের আতংক ছিলেন। তিনি সিলসিলায়ে আলীয়া কাদেরিয়া, আনজুমান, গাউসিয়া কমিটি, দাওয়াতে খায়রসহ সিলসিলার সকল কর্মসূচিতে ও আপন পীর-মুর্শীদের প্রতি এতবেশী নিবেদিত-ওয়াফাদার ছিলেন বলেই ইন্তেকালের পর হুজুর কিবলা তাহের শাহ (মু.জি.আ.) তামাম মাশায়েখ কেরাম তাঁর উপর রাজি আছেন মর্মে দোয়া মুনাজাত এবং হুজুর কিবলা পীর সাবির শাহ (মু. জি.আ.) ভিডিও বার্তায় আল্লামা নঈমীকে ‘শায়খুল ইসলাম’ অভিধায় অভিহিত করেন। যার কারণে সকলের কাছে আজ তিনি চিরস্মরণীয়-বরণীয় উল্লেখ করে বক্তারা, আল্লামা নঈমী (রহ.)’র জীবনাদর্শ অনুসরণের মাধ্যমে সুন্নীয়ত ভিত্তিক সার্থক জীবন গঠনে সর্বস্তরের মুসলমানদের প্রতি আহবান জানান।
আলহাজ্ব নূর মুহাম্মদ আল-কাদেরী (রহ.) স্মৃতি সংসদ’র ব্যবস্থাপনায় গত ১৩ আগস্ট নগরীর বলুয়ারদীঘিপাড়স্থ খানকাহ-এ কাদেরিয়া সৈয়্যদিয়া তৈয়্যবিয়ায় চেহলাম শরীফ মাহফিলে বক্তারা উপরোক্ত আহবান জানান। আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নীয়া ট্রাস্ট’র সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মুহাম্মদ মহসিন’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ মাহফিলে প্রধান মেহমান ও প্রধান আলোচক ছিলেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত বাংলাদেশ’র কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান শায়খুল হাদীস আল্লামা কাজী মুহাম্মদ মঈনুদ্দিন আশরাফী ও আনজুমান ট্রাস্ট’র জেনারেল সেক্রেটারি আলহাজ্ব মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। স্মৃতি সংসদ’র সভাপতি অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ এরশাদ খতিবীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ মেহমান ও আলোচক ছিলেন আনজুমান ট্রাস্ট’র এসিসট্যান্ট সেক্রেটারি আলহাজ্ব এস.এম. গিয়াস উদ্দিন সাকের, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মুহাম্ম কমিশনার, মহাসচিব আলহাজ্ব শাহজাদ ইবনে দিদার, যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ্ব এড.মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার, বিশিষ্ট বীমা ব্যাক্তিত্ব ও জামেয়ার প্রাক্তন ছাত্র মাওলানা মুহাম্মদ হারুনর রশীদ মজুমদার, ঢাকা কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া আলীয়ার মুহাদ্দিস আল্লামা জসিম উদ্দীন আল- আযহারী, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আতের সহসভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ আবুল কালাম বয়ানী, বোয়ালখালী উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা কাজী ওবায়দুল হক হক্কানি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক মাওলানা মুহাম্মদ মুরশেদুল হক, গাউসিয়া কমিটির লাশ কাফন-দাফন কর্মসূচির মনিটরিং সদস্য আলহাজ্ব মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ, মাওলানা মুহাম্মদ সাঈফুদ্দিন আল-আযহারি, মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল গফুর রিজভী, চট্টগ্রাম মহানগর গাউসিয়া কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ মাহবুবুল আলম, মহানগর গাউসিয়া কমিটির সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ছাবের আহমদ, সাবেক অর্থ সম্পাদক আলহাজ্ব মনোয়ার হোসেন মুন্না, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন’র মাদরাসা পরিদর্শক মাওলানা মুহাম্মদ হারুনুর রশীদ, মাসিক তরজুমান’র সহ-সম্পাদক আবু নাছের মুহাম্মদ তৈয়ব আলী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা গাউসিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হাবীবুল্লাহ মাস্টার, উত্তর জেলা কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক গাজী মুহাম্মদ লোকমান, মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান প্রমুখ। শেরে মিল্লাত নঈমী (রহ.)’র পরিবারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন- মাওলানা মুহাম্মদ নূরুল্লাহ কলিম নঈমী, মুহাম্মদ হাবিব উল্লাহ সাহেদ নঈমী, মাওলানা মুহাম্মদ হামেদ রেজা নঈমী, মাওলানা মুহাম্মদ কাশেম রেজা নঈমী। জামেয়ার শিক্ষক মাওলানা মুহাম্মদ নঈমুল হক নঈমীর পরিচালনায় মিলাদ- কেয়াম শেষে মাহফিলে আখেরী মোনাজাত করেন- জামেয়া আহমদিয়া সুন্নীয়া আলীয়ার আরবি প্রভাষক মাওলানা আবুল আসাদ মুহাম্মদ জুবায়ের রজভী। মুফতি আল্লামা নঈমী (রহ.)’র শানে মানকাবাত পাঠ করেন- শায়ের মাওলানা এমদাদুল ইসলাম কাদেরী। খানকাহ শরীফের মোতায়াল্লী আলহাজ্ব নেওয়াজ আহমদ দুলাল,আলহাজ্ব সাব্বির আহমদ, আলহাজ্ব নূর আহমদ পিন্টু, আলহাজ্ব সিদ্দিক আহমদ’ সার্বিক তত্ত্বাবধানে চেহলাম শরীফ উপলক্ষে সকাল থেকে পবিত্র খতমে কুরআন, খতমে বোখারি, খতমে মাজমুয়ায়ে সালাওয়াত-ই রাসুল (দ.), খতমে গাউসিয়া শরীফ, মাজারে পুষ্পার্ঘ্য, গিলাফ ছড়ানো, জিয়ারত-মোনাজাত এবং বাদ এশা তাবরুক পরিবেশনের মাধ্যমে দিনব্যাপী কর্মসূচির সমাপ্তি ঘটে।

বিভিন্ন স্থানে আল্লামা নঈমী (রহ.)’র স্মরণ সভা অব্যাহত
জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া শিক্ষক পরিষদ
শেরে মিল্লাত হযরতুল আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.)র স্বরণ সভা সম্প্রতি জামেয়ার শিক্ষক-কর্মচারী পরিষদের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় হুজুরের জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন মাদরাসার আরবী প্রভাষক মাওলানা মোহাম্মদ আনিসুজ্জমান, আরবী প্রভাষক মাওলানা আবুল আসাদ মুহাম্মদ জোবায়ের রজবী, আরবী প্রভাষক ও চট্টগ্রাম জমিয়তুল ফালাহ্ জাতীয় মসজিদের খতীব আল্লামা সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দিন, উপাধ্যক্ষ ড. মুহাম্মদ লিয়াকত আলী প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন, তিনি এশিয়া বিখ্যাত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম ষোলশহর জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদরাসায় দীর্ঘ অর্ধশত বছরের অধিক সময় মুহাদ্দিস ও শায়খুল হাদিসের দায়িত্ব পালন করেন। শিক্ষক হিসাবে তিনি ছিলেন দায়িত্বশীল অভিভাবকের ন্যায়। আলোচনা শেষে হুজুরের রফয়ে দরজাত ও জান্নাতের আ‘লা মকান দান করার জন্য পরম দয়ালু আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দরবারে দু‘আ ও মুনাজাত করেন অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ মোহাম্মদ অফিয়র রহমান।

গাউসিয়া কমিটি উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড শাখা
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড শাখা উদ্যোগে গত ১৫ জুলাই হযরত আল্লামা সৈয়দ আহমদ শাহ সিরিকোটি (রহ.) ও শেরে মিল্লাত মুফতি আল্লামা ওবায়দুল হক নঈমী (রহ.) এর ফাতেহা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সহ-সভাপতি মুহাম্মদ ইব্রাহিম ফারুকী সুমনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম সওদাগরের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ পাহাড়তলী থানা সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মুসলিম উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ পাহাড়তলী থানা সহ-সভাপতি হাজী নুর মুহাম্মদ সওদাগর, ৯নং ওয়ার্ডের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আলমগীর হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক নাইমুল হাসান তানভীর, অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন, নোয়াপাড়া ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান হৃদয়, গোলপাহাড় ইউনিটের সভাপতি মুহাম্মদ আলী হোসেন, কৈবল্যধাম ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক ডা. জসিম উদ্দিন, মুসলিম মিয়া, সাকিব, তৌহিদ প্রমুখ।

গাউসিয়া কমিটি আবদুস সমদ শাহ্ (রহ.) ইউনিট শাখা
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ রাউজান উপজেলা (দক্ষিণ)’র ১৪নং বাগোয়ান ইউনিয়ন শাখার আওতাধীন হযরত মাওলানা আবদুস সমদ রযভী (রহঃ) শাখার ব্যবস্থাপনায় গত ২২ জুলাই, উত্তর গশ্চি জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে শায়খূল হাদিস আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রহঃ)’র স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
সংগঠনের সভাপতি মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন সেলিম এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ রাউজান উপজেলা দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হানিফ, প্রধান আলোচক ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাগোয়ান ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক ও তাহেরীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়্যদ মুহাম্মদ শওকত হোসাইন রযভী, বিশেষ আলোচক ছিলেন রাউজান উপজেলা (দক্ষিণ) গাউসিয়া কমিটির অর্থ সম্পাদক মুহাম্মদ নওশাদ হোসাইন সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ নাঈম উদ্দিন ও মুহাম্মদ হেলাল ফারুক মুন্নার সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট সমাজসেবক মুহাম্মদ আজিজুল হক, এমদাদুল ইসলাম, আহমেদ রেযা, হাজী আবুল কালাম, মাওলানা মুহাম্মদ ইলিয়াছ রেযভী, মাওলানা মুহাম্মদ নাঈমুল মোস্তফা, মুহাম্মদ রাশেদ আলী, ফজলে রাসুল নবীল, মুহাম্মদ ইসমাইল, মুহাম্মদ আরমান, মাওলানা আইয়ুব খান কাদেরী, মুহাম্মদ জাগির, আবদুর রউফ, মুহাম্মদ আসিফ, মুহাম্মদ তানভীর, মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর, মুহাম্মদ মামুন, মুহাম্মদ মুন্না, মুহাম্মদ ইমন, মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, মুহাম্মদ মিজান, মুহাম্মদ রেজভী প্রমুখ।

গাউসিয়া কমিটি ফরহাদাবাদ ইউনিয়ন শাখা

গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ ফরহাদাবাদ ইউনিয়ন শাখার ব্যবস্থাপনায় গত ১৮ জুলাই ফরহাদাবাদ উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে ইমামে আহলে সুন্নাত আল্লামা কাযী মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম হাশেমী (রহ.) ও আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত বাংলাদেশের চেয়ারম্যান শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.) এর স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠক মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন হাটহাজারী উপজেলা গাউসিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ হারুন সওদাগর। প্রধান বক্তা ছিলেন হাটহাজারী উপজেলা গাউসিয়া কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুহাম্মদ আবু সাঈদ। ফরহাদাবাদ ইউনিয়ন গাউসিয়া কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইউসুফ এর সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন মাওলানা মুহাম্মদ নুরুচ্ছাপা, মুহাম্মদ এসকান্দর মিয়া, অধ্যাপক মুহাম্মদ আলফাজ উদ্দিন, সৈয়দ আব্দুল ওহাব, মুহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন, মাওলানা মুহাম্মদ অহিদুল আলম, মাওলানা আলী মর্তুজা সিরাজি, হাজী মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম, মুহাম্মদ নুরুল হাকিম চৌধুরী ভুট্টো, মাওলানা মুহাম্মদ হোসাইন, মুহাম্মদ মঈন উদ্দিন, আবু আহমদ, মুহাম্মদ ওমর ফারুক লিটন, মুহাম্মদ ইব্রাহিম, মুহাম্মদ মহসিন আলী, মুহাম্মদ শাকিল, মুহাম্মদ আবুল কালাম, মুহাম্মদ মোরশেদুল আলম, মুহাম্মদ মফিজ উদ্দিন, মুহাম্মদ হাসান, মুহাম্মদ আতাউর রহমান বাবু প্রমুখ।

কধুরখিল খানকা-এ কাদেরিয়া সৈয়দিয়া তৈয়বিয়া
বোয়ালখালী উপজেলার কধুরখীল হযরত সৈয়দ নুরুল্লাহ খতিব (রহ.) বাড়ি সম্মুখস্থ খানকাহ-এ কাদেরিয়া সৈয়্যদিয়া তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়ায় শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.)’র স্মরণসভা ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা গাউসিয়া কমিটির সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, বোয়ালখালী উপজেলার সাবেক সভাপতি, কধুরখীল খানকাহ্ শরীফের মোতাওয়াল্লী আলহাজ্ব মুহাম্মদ সিরাজুদ্দৌলাহ খতিবীর চাহরম শরীফ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটির চেয়ারম্যান আলহাজ পেয়ার মোহাম্মদ কমিশনার। প্রধান আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নীয়া আলীয়া’র অধ্যক্ষ, আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ অসিয়র রহমান। বক্তারা শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী(রহ.) ‘ফানা-ফির-রাসুল ও ফানা-ফিশ-শায়খ’ উল্লেখ করে বলেন, ওহাবি-নজদী, শিয়া-কাদিয়ানী-খারেজী, মওদুদী-জামাতীদের রাসুলের শানে বেয়াদবির বিপক্ষে মাঠে-ময়দানে ওয়াজ-নসিহত, সম্মুখ বাহাসসহ সময়োচিত সাংগঠনিক কর্মসূচির মাধ্যমে ইশকে রাসূল (দ.) জাগ্রত করতে কালজয়ী অবদান রেখেছেন বলে মন্তব্য করেন। বোয়ালখালী উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাওলানা কাজী ওবায়দুল হক হক্কানির সভাপতিত্বে স্মরণসভা ও মাহফিলে বিশেষ মেহমান ছিলেন গাউসিয়া কমিটির কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সচিব আলহাজ্ব এড. মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার, শেরে মিল্লাত আল্লামা নঈমী (রহ.)’র শাহজাদা মোহাম্মদ হাবিব উল্লাহ শাহেদ নঈমী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা কমিটির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নেজাবত আলী বাবুল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শেখ মুহাম্মদ সালাহ উদ্দিন, বোয়ালখালী উপজেলা কমিটির মুহাম্মদ নূরুল ইসলাম মুন্সি, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা জয়নাল আবেদীন আল কাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, মুহাম্মদ মমতাজুল ইসলাম, আলহাজ মুহাম্মদ ইস্কান্দর আলম দিদার, পৌরসভা কমিটির মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, মুহাম্মদ বেলাল উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর, আলহাজ্ব আহমদ নবী সওদাগর, মাওলানা আবু সালেহ মোহাম্মদ সাইফুল হক, আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইব্রাহিম ইকবাল খতিবী, মোহাম্মদ এমরান কাদেরী প্রমূখ। মরহুমের পরিবারের পক্ষে বক্তব্য রাখেন – গাউসিয়া কমিটির কেন্দ্রীয় মিডিয়া সেল সদস্য মুহাম্মদ এরশাদ খতিবী।

গাউসিয়া কমিটি ওয়াজের আলী রোড শাখা
গাউসিয়া কমিটি ওয়াজের আলী রোড ইউনিটের উদ্যোগে হযরত সৈয়দ আহমদ শাহ সিরিকোটি (রহ.) এর সালানা ওরশ মোবারক ও শেরে মিল্লাত মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.) এর স্মরণসভা গত ১০ জুলাই আলহাজ্ব ওয়াজের আলী সওদাগর এবাদত খানায় ইউনিট সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ নুরউদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের এডিশনাল জেনারেল সেক্রেটারী আলহাজ্ব মোহাম্মদ সামশুদ্দিন, আরো উপস্থিত ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ ১৯নং ওয়ার্ড সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ নুর হোসেন, প্রচার সম্পাদক মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, ইউনিট উপদেষ্টা যথাক্রমে আলহাজ্ব মোহাম্মদ ছিদ্দিক, আলহাজ্ব ছাবের আহম্মদ জাহাঙ্গীর, আলহাজ্ব আজিম উদ্দিন, আলহাজ্ব আলাউদ্দিন বিটু, আলহাজ্ব মোহাম্মদ কাশেম, মোহাম্মদ আরিফ, মোহাম্মদ বশির, আলহাজ্ব মাহমুদুল হক ও ইউনিট সহ সভাপতি মোহাম্মদ খালেদ সোহেল, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোহাম্মদ হামিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবুল, দাওয়াতে খাইর সম্পাদক হাফেজ মোহাম্মদ জসিম, ইউনিট সদস্য আজওয়াদ আলী আবির, আজমাইন আলী আইয়ান, মোহাম্মদ এরশাদ প্রমূখ।
মাহফিলে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব ওয়াজের আলী সওদাগর এবাদতখানার পেশ ইমাম মাওলানা মোহাম্মদ সৈয়দ আনসারী।

গাউসিয়া কমিটি শীতলঝর্ণা শাখা
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ বায়েজিদ থানাধীন শীতলঝর্ণা আবাসিক এলাকায় কুতুবুল আউলিয়া, বাণীয়ে জামেয়া হাফেজ ক্বারী আল্লামা সৈয়দ আহমদ শাহ্ সিরিকোটি (রহ.)’র ওরস মোবারক, শায়খুল হাদীস শেরে মিল্লাত মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.)’র স্মরণসভা দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জামেয়ার অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ অছিয়র রহমান আলকাদেরী। হযরত সিরিকোটি ও আল্লামা নঈমী (রহ.)’র জীবন-কর্মের বিভিন্ন দিক নিয়ে সারগর্ভ বয়ান-তকরির পেশ করেন মালয়েশিয়া আন্তর্জাতিক মালায়া ইউনির্ভাসিটির এম.ফিল গবেষক মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ হাসান আযহারি, মাওলানা সৈয়দ নুর মুহাম্মদ আলকাদেরী, মাওলানা মুহাম্মদ বোরহান উদ্দিন, শাহযাদা মাওলানা আহমদ রেযা, মাওলানা রবিউল হক, আলহাজ্ব মাওলানা সুলতানুল আলম আনসারী, মাওলানা সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম কাদেরী, শায়ের মাওলানা ইসহাক, আলহাজ্ব মাওলানা সৈয়দ নুর বাঙ্গালী ও ফকিরচিল্লাহ্ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা সৈয়দ মুনিরুদ্দীন প্রমুখ। গাউসিয়া কমিটির বিভিন্ন শাখা দায়িত্ববানদের মধ্যে আলহাজ্ব সৈয়দ হাবিবুর রহমান সর্দার, আলহাজ্ব সৈয়দ আবদুর রহমান, সৈয়দ গোলাম মোস্তফা, সৈয়দ গোলাম মোরশেদ ও আলহাজ্ব মুসলিম মিয়া সহ অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন। মাহফিলের সভাপতি অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ অছিয়র রহমান আলকাদেরী বলেন, কুতুবুল আউলিয়া হযরত সিরিকোটি (রহ.) পাকিস্তান, আফ্রিকা, মোম্বাসা, রেঙ্গুন ও বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রত্যন্ত অঞ্চলে শত বছরের অধিক হায়াতে শরিয়ত, তরিকত, আহলে সুন্নাত ওয়াল জমাআত ও সিলসিলায়ে আলিয়া কাদেরিয়ার বিশাল খেদমত আনজাম দিয়েছেন।

চরলক্ষ্যা ইউনিয়ন গাউসিয়া কমিটি
গাউসিয়া কমিটি চরলক্ষ্যা ইউনিয়ন শাখা ও আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত কর্ণফুলী উপজেলার যৌথ উদ্যোগে সৈন্যের বাড়ী শাহী জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে ইমামে আহলে সুন্নাত আল্লামা নুরুল ইসলামী হাশেমী (রহ.) ও শেরে মিল্লাত শায়খুল হাদীস আল্লামা ওবায়দুল হক নঈমী (রহ.)’র স্মরণে ইছালে সাওয়াব ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন গাউসিয়া কমিটি চরলক্ষ্যা ইউনিয়ন শাখার সভাপতি হাজি বজল আহমদ। মাহফিল সঞ্চালনায় ছিলেন গাউসিয়া কমিটি ইউনিয়ন শাখার সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবছার আজাদ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাআত কর্ণফুলী উপজেলার সভাপতি আল্লামা হাসান রেজভী। প্রধান বক্তা ছিলেন ড. মাওলানা খলিলুর রহমান ও মাওলানা আবু ছাদেক রেজভী। আরও উপস্থিত ছিলেন শায়ের মাওলানা এনামুল হক এনাম।

আনোয়ারা তাহেরিয়া ছাবেরিয়া সুন্নিয়া মাদরাসা
আনোয়ারা সদরস্থ ছৈয়দিয়া তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া সাবেরিয়া সুন্নিয়া মাদরাসার উদ্যোগে মাদরাসার প্রধান উপদেষ্টা শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী রহমাতুল্লাহি আলায়হির স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল গত ২৪ জুলাই অনুষ্ঠিত হয়। মাদরাসার সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ রেজাউল হক এর সভাপতিত্বে মাদরাসার পরিচালক মুফতি কাজী শাকের আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় মাদরাসা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ আনোয়ারা উপজেলার সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ। প্রধান আলোচক ছিলেন অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল গফুর। বিশেষ অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি আনোয়ারা উপজেলার সহ সভাপতি আলহাজ্ব আহমদ কবির, মাওলানা মুজিবুর রহমান, মাওলানা মোরশেদুল আলম, মাওলানা আহমদ নুর আলকাদেরী, মাওলানা ফজলুল হক, মাওলানা নুর মোহাম্মদ আনোয়ারী। অন্যদের উপস্থিত ছিলেন মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন সিদ্দিকী, মাস্টার মুহাম্মদ এয়াকুব আলী, মাওলানা ফিরোজ আলম, ব্যাংকার মুহাম্মদ জাকের আহমদ চৌধুরী, মুহাম্মদ ফরিদুল আলম (ব্যাংকার), এস.এম. আবদুল হালিম, মাওলানা ওসমান গণি, মাওলানা আবদুল আজিজ, মাওলানা মুহাম্মদ নুরুল আনচার, মাওলানা আলী জিন্নাহ্, হাফেজ মুহাম্মদ শাহজাহান, হাফেজ মাওলানা আবু ছৈয়দ, হাফেজ মাওলানা সাজ্জাদ হোসেন, মাওলানা কলিম উদ্দিন প্রমুখ।

মাদার্শা খানকা-এ কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া
হাটহাজারী থানার অন্তর্গত মধ্য মাদার্শাস্থ খানকাহ্ এ কাদেরিয়া তৈয়্যবিয়া তাহেরিয়া কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনায় গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ হাটহাজারী (পূর্ব) থানার সার্বিক তত্ত্বাবধানে মুর্শিদে বরহক, আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ্ (রহ.)’র বার্ষিক ওরস শরীফ আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ওস্তাজুল ওলামা, শায়খুল হাদসি, আল্লামা শেরে মিল্লাত মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.)’র স্মরণসভা খানকাহ্ শরীফের চেয়ারম্যান ও গাউসিয়া কমিটি হাটহাজারী (পূর্ব) থানার প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোহাম্মদ জসীম উদ্দীনের সভাপতিত্বে গত ৮ আগস্ট, খানকাহ শরীফ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি ছিলেন যথাক্রমে গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় পরিষদের মহাসচিব আলহাজ্ব সাহজাদ ইবনে দিদার, যুগ্ম মহাসচিব আলহাজ্ব এডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতেয়ার, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ আল্লামা তৈয়ব আলী ও উত্তরজেলা গাউসিয়া কমিটির সহ সভাপতি মাওলানা ইয়াছিন হোসাইন হায়দরী। মাস্টার সেকান্দর হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব মোহাম্মদ মোফাক্কর, গাজী মোহাম্মদ লোকমান, মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ হারুনুর রশীদ, মাওলানা মফিজুল ইসলাম আলকাদেরী, মাওলানা আবদুর রহিম আলকাদেরী, এমদাদুল ইসলাম, ফরিদুল আলম মিঠু, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, সৈয়দ মুহাম্মদ মিয়া, শাহ্ মুহাম্মদ নাছির উদ্দীন, মাস্টার এনামুল হক, লোকমান হাকিম, মাওলানা শাহজাহান, উপাধ্যক্ষ সৈয়দ পেয়ার মুহাম্মদ, আরশাদ চৌধুরী, মুহাম্মদ আবছার, এস.এম. আজাদ, ইলিয়াছ সওদাগর, লিয়াকত আলী খান, এস.এম. সোলাইন, মুহাম্মদ জামশেদ, মুহাম্মদ আবু তাহের, হাজী মুহাম্মদ শফি, মুহাম্মদ খোরশেদ, ফরহাদ আজম, নুরুল আনোয়ার, ইকবাল চৌধুরী, আবদুল্লাহ্ শাহ্, মুহাম্মদ আলী জিন্নাহ্ প্রমুখ।

জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদরাসায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

বাংলাদেশের স্বাধীনতার মহান স্থপতি বাঙ্গালী জাতির অবিসংবাদিত নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০২০ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতী সৈয়্যদ মুহাম্মদ অছিয়র রহমানের সভাপতিত্বে সহকারী অধ্যাপক মাওলানা মুহাম্মদ ইলিয়াছ আলক্বাদেরীর সঞ্চালনায় জামেয়া অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আনজুমান-এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট’র সেক্রেটারী জেনারেল আলহাজ¦ মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন। বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ মাওলানা ড. মুহাম্মদ লিয়াকত আলী, মুফাসসির আল্লামা কাজী মুহাম্মদ ছালেকুর রহমান আলক্বাদেরী, প্রভাষক মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, মাওলানা মুহাম্মদ মনযুর রশিদ চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন প্রভাষক মাওলানা মোহাম্মদ হামেদ রেযা নঈমী, মাওলানা মুহাম্মদ সাইফুদ্দিন খালেদ, প্রভাষক মুহাম্মদ মঈনুল ইসলাম, মাওলানা মোহাম্মদ তারেকুল ইসলাম, মাওলানা মোহাম্মদ জামাল উদ্দীন, মুহাম্মদ আবদুল আলীম, মুহাম্মদ শাহ-ই-জাহান, মাওলানা মুহাম্মদ নঈমুল হক, মাওলানা মুহাম্মদ জহুরুল আনোয়ার, মুহাম্মদ মাঈনুল ইসলাম (বিজ্ঞান), মাওলানা মুহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, মাওলানা মোহাম্মদ আতাউর রহমান নঈমী, মোহাম্মদ আমজাদ হোসেন, মাওলানা মোহাম্মদ সোলায়মান, মাস্টার মুহাম্মদ শাহ আলম, এস, এম, ওসমান গণি প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বক্তাগণ বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন। প্রধান অথিতি তাঁর বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনের সবচেয়ে অনুকরণীয় ও শিক্ষনীয় বিষয় হচ্ছে তিনি ছিলেন নিখাদ দেশপ্রেমিক ও সম্মোহনি নেতৃত্বের অধিকারী অবিসংবাদিত নেতা। বাংলাদেশ এবং বঙ্গবন্ধু এক ও অভিন্ন বিষয়। তাঁর জন্ম হয়েছিল বিধায় আজকের স্বাধীন বাংলাদেশের অস্তিত্ব।
সভাপতি বলেন-বঙ্গবন্ধুৃ শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান চিরস্মরণীয়। তিনি বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড, ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করে এ দেশে ইসলাম ধর্মের প্রচার-প্রসারে বিরাট অবদান রেখেছেন। জাতির জনকের ৪৫ তম শাহাদত বার্ষিকীতে তিনি আরো বলেন, কোন ধর্মেই মানব হত্যার অনুমোদন নেই। তিনি বঙ্গন্ধুর সাথে অন্যান্য শাহাদত বরণকারীদের রূহের মাগফিরাত কামনা করেন।
পরিশেষে মিলাদ, কিয়াম, ছালাত ও সালাম পাঠান্তে আখেরী মুনাজাত করেন মুফাসসির কাজী মুহাম্মদ ছালেকুর রহমান আলক্বাদেরী।

তৈয়্যবিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া ফাযিল (ডিগ্রী) মাদরাসায় জাতীয় শোক দিবস উদযাপিত
আনজুমান এ রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট পরিচালিত মাদরাসা এ তৈয়্যবিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া ফাযিল (ডিগ্রী)’র মিলনায়তনে ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়। মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ বদিউল আলম রিজভির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গৃহিত কর্মসূচির মধ্যে ছিল, জাতীয় ও প্রাতিষ্ঠানিক পতাকা উত্তোলন, কেরাত হামদ নাত ও জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এবং সোনার বাংলা বিনির্মানে বঙ্গবন্ধু অবদান শীর্ষক স্মারক আলোচনা অনুষ্ঠানে অংশ নেন মুফতি এ এস এম জালাল উদ্দিন ফারুকী, মাওলানা আবুল হাসানাত আলকাদেরী, মোশাররফ হোসাইন, প্রভাষক আমির আলী, মাওলানা মুজিবুর রহমান, মাওলানা ছগীর আহমদ আলকাদেরী, প্রভাষক কোহিনুর আকতার, প্রভাষক মেরি চৌধুরী, মাওলানা ইউনুস তৈয়্যবি, এ কে এম রফিক উল্লাহ খান, মাওলানা জহির উদ্দিন তুহিন, মাওলানা রফিকুল ইসলাম, মাওলানা আবদুল আউয়াল ফোরকানী, মাওলানা এনাম উদ্দিন, মাওলানা আবদুল গফুর খান, মাওলানা সাইফুল্লাহ খালেদ, মাওলানা হাসান, মাওলানা ফেরদৌস আলম প্রমুখ। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর আয়োজিত বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ এবং সোনার বাংলা বিনির্মানে বঙ্গবন্ধু বিষয়ক ক ও খ গ্রুপে অনলাইন রচনা প্রতিযোগিতায় হামদ নাত ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় ৬ষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত ১৫ জন ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করে। আমার মুজিব শিরোনামে রচনা প্রতিযোগিতায় ০৯ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। বক্তারা বলেন, বাঙ্গালী জাতির মুক্তি ও অধিকার আদায়ের প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভুমিকা বাঙ্গালী জাতিকে বিশ্বের মাঝে মর্যাদার আসনে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছে। তাকে স্বপরিবারে হত্যা করে স্বাধীনতাবিরোধী চক্রান্তকারীরা জাতীয় ইতিহাসে এক কলংকজনক অধ্যায় রচনা করেছে। ১৫ আগস্ট শাহাদাতবরণকারী প্রত্যেকের মাগফিরাত কামনা করে দুআ ও মুনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন আরবি প্রভাষক মাওলানা ছগীর আহমদ আলকাদেরী।

চাঁপাতলী ও ছিরা বটতলী ইউনিয়ন শাখার কাউন্সিল
আনোয়ারা থানাধীন বটতলী ইউনিয়নস্থ ২নং ওয়ার্ড চাঁপাতলী ও ৩নং ওয়ার্ড ছিরা বতটলী শাখার যৌথ উদ্যোগে গাউসিয়া কমিটির ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল গত ৩ জুলাই চাঁপাতলীস্থ সাইয়ার পুকুর জামে মসজিদে বাদে মাগরিব অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন হাজী নুরুল ইসলাম চৌধুরী। প্রধান অতিথি ছিলেন বটতলী ইউনিয়ন গাউসিয়া কমিটির সভাপতি এস.এম. আবু তালেব ফকির, বিশেষ অতিথি ছিলেন বটতলী ইউনিয়ন গাউসিয়া কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি এস.এম. শাহনেওয়াজ। উপদেষ্টা পরিষদের ৬জন সদস্যসহ আরো অন্যান্য পীর ভাইগণ। আবুল কাশেম ভেন্ডারের সঞ্চালনায় মুহাম্মদ ইমরান হোসেনকে সভাপতি, মুহাম্মদ কামাল সিনিয়র সহ সভাপতি, মুহাম্মদ আবু তাহের সহ সভাপতি, মুহাম্মদ আইয়ুব আলী সাধারণ সম্পাদক, সৈয়দ মুহাম্মদ কামাল সহ সাধারণ সম্পাদক, মুহাম্মদ মেহেদী হাসান বেলাল অর্থ সম্পাদক, মুহাম্মদ লোকমান সহ অর্থ সম্পাদক, মুহাম্মদ আমিনুল হক প্রচার সম্পাদক, মুহাম্মদ আহমদুল্লাহ্ সহ প্রচার সম্পাদক এবং ২৯ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাহী সদস্য করে তিন বছর মেয়াদী পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়।

শোক সংবাদ /শিক্ষাবিদ ইউসুফ চৌধুরী
গাউছিয়া কমিটি চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শাখার প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব আহসান হাবিব চৌধুরী হাসান এর পিতা প্রবীণ শিক্ষাবিদ মাস্টার আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইউসুফ চৌধুরী (৭২) গত ২৬ জুলাই ইন্তেকাল করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি ৩ ছেলে, ৫ মেয়ে, নাতি-নাতনি, ছাত্র-ছাত্রী সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। মরহুমের নামাজে জানাজা ঐদিন বাদে আসর মরহুমের নিজবাড়ী রাউজান পৌরসভার সুলতানপুরস্থ হাসমত আলী চৌধুরী বাড়ি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। মাস্টার ইউসুফ চৌধুরীর ইন্তেকালে শোক প্রকাশ করেছেন এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, আনজুমান ট্রাস্টের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ মুহাম্মদ মহসিন, সেক্রেটারী জেনারেল আলহাজ্ব মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আলহাজ পেয়ার মুহাম্মদ, মহাসচিব শাহজাদ ইবনে দিদার, যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার, উত্তর জেলার সভাপতি আবদুস শুক্কুর, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও ধর্মীয় সংগঠনের নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।
উল্লেখ্য যে, তিনি দীর্ঘ শিক্ষকতা জীবনে রাউজান ষ্টেশন মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাজীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দাশপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছিটিয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ আরো কয়েকটি বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন।

আলহাজ্ব শফিউল্লাহ
গাউসিয়া কমিটি বায়েজিদ থানা শাখার সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ শফিউল্লাহ (৬৮) গত ২২ জুলাই নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন (ইন্না……রাজেউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে, ২ মেয়ে সহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখেযান। মরহুমের নামাজে জানাজা ২৩ জুলাই বৃহস্পতিবার বাদে জোহর উত্তর কুলগাঁও পরদাইশ চৌধুরী শাহি জামে মসজিদ ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। মরহুমের ইন্তেকালে গাউসিয়া কমিটি বায়েজিদ থানা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ হাবিবুর রহমান, ২নং জালালাবাদ ওয়ার্ড শাখার সভাপতি এনামুল হক, সাধারণ সম্পাদক শহীদ উল্লাহ, আলা হযরত ইমাম আহমদ রেজা যুব কাফেলার চেয়ারম্যান মাওলানা মুহাম্মদ আলী আলকাদেরী শোক প্রকাশ করেন এবং শোকাহত পরিবার পরিজনের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

আলহাজ্ব সৈয়্যদুল হক
গাউসিয়া কমিটি হাটহাজারী পশ্চিম ধলই শফি নগর পূর্ব ইউনিট শাখার প্রবাসী সদস্য আলহাজ্ব মুহাম্মদ ওয়াহিদুল আলম এর পিতা সমাজসেবক আলহাজ্ব মুহাম্মদ সৈয়্যদুল হক (৮৮) গত ১৬ জুলাই নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন (ইন্না….রাজেউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৫ ছেলে, ৪ মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অনেক গুণগ্রাহী রেখে যান। মরহুমের নামাজে জানাজা ঐদিন রাত ১০ টায় পশ্চিম ধলই শফি নগর দৌলত গোমস্তারবাড়ী জামে মসজিদ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। মরহুমের ইন্তেকালে শোক প্রকাশ করেন গাউসিয়া কমিটি মক্কা মকাররমা শাখার সভাপতি মাওলানা সোলাইমান আলকাদেরী, সহ-সভাপতি আমান উল্লাহ আমান সমরকন্দী, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহাজাহান।

মাওলানা সৈয়দ মনিরুল হক আল-কাদেরী
আহলে সুন্নাত ওয়াল জমা’আত বাঁশখালী ৩নং খানখানাবাদ ইউনিয়নের সভাপতি ও হযরত তমিজ উদ্দিন শাহ্ (রহ.) আউলাদ আলহাজ্ব মাওলানা সৈয়দ মনিরুল হক আলকাদেরী (৬৮) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না…রাজেউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ ছেলে, ৫ মেয়ে নাতি-নাতনি সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। ২৩ জুলাই বৃহস্পতিবার বেলা ২ ঘটিকার সময় বাঁশখালী কদম রসুল বড় মাওলানা শাহ্ (রহ.) মাজার প্রাঙ্গণে পীরে ত্বরিকত হাফেজ মাওলানা শাহ আলম নঈমীর ইমামতিতে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। সৈয়দ মনিরুল হকের ইন্তেকালে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাঁশখালী থানা শাখার সভাপতি মুহাম্মদ আনোয়ার, সহ-সভাপতি মাওলানা আবদুর রহিম সিরাজী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবু বক্কর সিকদার শোক প্রকাশ করেন এবং শোকাহত পরিবার পরিজনের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

মৌলানা আহমদ কবির
গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ দোহাজারী পৌরসভার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন আঙ্গুর এর পিতা মৌলানা আহমদ কবির গত ১ আগস্ট ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে ওনার বয়স ছিল ৭০ বছর। তিনি স্ত্রী, ৩ ছেলে, ১ মেয়ে, নাতি-নাতনি সহ অসংখ্য আতœীয় স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে যান। তাঁর ইন্তেকালে শোক প্রকাশ করেছেন চন্দনাইশ উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মৌলানা সোলায়মান ফারুকী। গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ চন্দনাইশ উপজেলার সভাপতি মৌলানা আব্দুল গফুর খান এবং সেক্রেটারী আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম, দোহাজারী পৌরসভার সভাপতি মৌলানা খোরশেদ রেজভী, আবু ছাদেক মহসিন, জাফর আহমদ খান, সেক্রেটারী তৌহিদুল মোস্তফা কাদেরী, হাজী আবু তাহের, আমির হোসেন, জাকের সওদাগর, জালাল উদ্দীনসহ গাউসিয়া কমিটি দোহাজারী শাখার নেতৃবৃন্দ শোক প্রকাশ ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা ও তার আতœার মাগফেরাত কামনা করেন।

মুহাম্মদ আবুল কালাম
গাউসিয়া কমিটি বন্দর থানা শাখার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সাহাব উদ্দীনের পিতা হাজী মুহাম্মদ আবুল কালাম গত ৭ জুন বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৭০ বছর। মরহুমের নামাযে জানাযা সকাল ১১টায় জাফর আলী মালুম মসজিদ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। তাঁর ইন্তেকালে বন্দর থানা গাউসিয়া কমিটি নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেন।

নজীর আহমদ
গাউসিয়া কমিটি বন্দর থানা শাখার সহ সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ দিদার আলমের পিতা নজীর আহমদ গত৭ জুন বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৮০ বছর। তাঁর ইন্তেকালে বন্দর থানা গাউসিয়া কমিটি শাখা গভীর শোক প্রকাশ করেন।

আবুল কালাম
গাউসিয়া কমিটি বন্দর থানাধীন ৩৮নং ওয়ার্ড শাখার সদস্য আবুল কালাম বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ১০১ বছর। তাঁর ইন্তেকালে বন্দর থানা গাউসিয়া কমিটি শাখা গভীর শোক প্রকাশ করেন।

নুরুল আলম
বন্দর থানা হালিশহর তৈয়্যবিয়া ইসলামিয়া সুন্নিয়া ফাযিল মাদরাসা পরিচালনা পরিষদের সাবেক সহ সভাপতি, ৩৮নং ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিল ও ভারপ্রাপ্ত মেয়র মুহাম্মদ নুরুল আলম গত ৪ জুন মা ও শিশু হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৭০ বছর। মরহুমের ইন্তেকালে মাদরাসা পরিচালনা পর্ষদ, শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী এবং কর্মচারীবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেন।