আলহাজ্ব আমিনুর রহমান আলকাদেরী (রঃ)

0

দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার অনন্য বৈশিষ্টপূর্ণ দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলীয়া এবং ঢাকার মাদ্রাসায়ে কাদেরীয়া তৈয়্যবিয়ার সাথে অবিচ্ছেদ্য একটি নাম আলহাজ্ব আমিনুর রহমান আলকাদেরী। চট্টগামের একজন লব্দ প্রতিষ্ঠ ব্রবসায়ী আলহাজ্ব্ আমিনুর রহমান আলকাদেরীর কর্মময় জীবনে প্রতিটি মুহূর্তের চিন্তার অগ্রাধিকার পেতো মাদ্রাসার খেদমত। শেষ নিঃম্বাসটি ত্যাগ করার পূর্বক্ষণ পর্যন্ত তিনি এ খেদমতেই নিয়োজিত ছিলেন।

ছিলছিরায়ে কারেদরিয়া ছৈয়দিয়া তৈয়বিয়ার এ উজ্জলতম নক্ষত্র আলহাজ্ব আমিনুর রহমান আল-কাদেরী ১৯০৬ সালের ১৬ই জানুয়ারী চান্দগাঁও-এর এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ৫০-এর দশকের প্রথম ভাগে তিনি রাহনুমায়ে শরিয়ত ও তরিক্বত, পেশওয়ারে আহলে সুন্নাত কুতুব-উল-আউলিয়া আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়দ আহমদ শাহ কদ্দ ছিবরুহুর আজিজ এর সংস্পর্শে আসেন এবং তাঁর মোবারক হতে বাইআত গ্রহণ করেন। এ বাইআত তার জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। তিনি যেন এক মহাকাংখিত পরশ পাথরের সন্ধান লাভ করেন। কঠোর রিয়াজত, স্বীয় মুর্শিদের প্রতি একনিষ্ঠতা, আল্লাহর জন্য ভয় এবং রাসুল করিম (সঃ) প্রতি অনুকরণীয় মহব্বত এর দ্বারা তিনি তরিক্বত জগতে উচ্চ মর্তবাদ সমাসীন হন এবং গাউচে যামান মুর্শিদে বরহক আল্লামা ছৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ রহমাতুল্লাহে আলাইহে কর্তৃক কাদেরিয়া তরিকার খেলাফতের শিরোভূষণে ভূষিত হন।

তিনি গাউছে যামান আল্লামা তৈয়্যব শাহ (রঃ) মনোনীত খাস প্রতিনিধি হিসাবে ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী (সঃ) এর জশনে জুলুছে সাদরত করার বিরল সম্মান লাভ করেছিলেন। মাদ্রাসার খেদত রত অবস্থায় ১৯৮৩ সনের ৬ই এপ্রিল এ মহান ব্যক্তিত্ব ঢাকা মাদ্রাসায়ে কাদেরীয়া তৈয়্যবিয়া হতেই রাব্বুল ইজ্বতের আহ্বানে সাড়া দিয়ে ধরাধাম ত্যাগ করেন। ওফাতের পর পরই তিনি গাউছে যামান (রহমতুল্লাহে আলাইহে) কর্তৃক আলকাদেরী খেতাব ভূষিত হন।

শেয়ার
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •